বার্তাবাংলা ডেস্ক »

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় বিদ্যুৎ কান্তি দাশ (৩০) ও অপু দাশ (২৯) নামে দুই বন্ধু নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তাঁদের বন্ধু বাপ্পি দাশ (৩০)।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার টেরিয়াইল বাজার এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা লাশ দুটি উদ্ধার করে কুমিরা হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে প্রথমে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে নগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নিহত বিদ্যুৎ পটিয়া উপজেলার বাকখাইন গ্রামের আশুতোষ দাশের ছেলে। অন্য দুজন চট্টগ্রাম নগরের ঘাটফরহাদবেগ এলাকার অশোক দাশের ছেলে অপু ও দিলীপ দাশের ছেলে বাপ্পি। তাঁরা তিনজনই টেইলার্সের দোকানে কাজ করতেন।

সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা ওয়াসি আজাদ বলেন, তাঁরা তিন বন্ধু মোটরসাইকেলে করে সীতাকুণ্ডের কোথাও যাচ্ছিলেন। রাত আড়াইটার দিকে তাঁরা দুর্ঘটনার শিকার হন। নিহত বিদ্যুৎ ও অপুর মাথায় গুরুতর জখম হয়। তাঁরা দুর্ঘটনাস্থলেই মারা যান। হাইওয়ে পুলিশ বিষয়টি ফায়ার সার্ভিসকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে দুর্ঘটনায় হতাহতদের উদ্ধার করে।

কুমিরা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মোটরসাইকেলের আরোহী তিনজনের কারও মাথায় হেলমেট ছিল না। ঢাকামুখী লেনে তাঁরা দুর্ঘটনার শিকার হন। কীভাবে দুর্ঘটনা ঘটল, তা জানা যায়নি। তবে মোটরসাইকেলটি দুমড়েমুচড়ে গেছে।

হতাহতদের আরেক বন্ধু শিমুল দাশ বলেন, ওই তিনজন টেইলার্সদের দোকানে কাজ করতেন। রাতে বেড়াতে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনার শিকার হন। ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ হস্তান্তরের জন্য আবেদন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »