বার্তাবাংলা ডেস্ক »

লিওনেল মেসি মাঠে নামলেই সংবাদমাধ্যমের শিরোনাম। আলোচনায় থাকেন মাঠের বাইরের কর্মকাণ্ডের জন্যও। তবে খেলার বাইরের কর্মকাণ্ডের মধ্যে মেসির দানশীলতার খবর আলোচনায় এসেছে সামান্যই। যদিও বার্সেলোনা ফরোয়ার্ডের মাঠের পারফরম্যান্স আর দুস্থ শিশুদের সাহায্য করার মানসিকতা প্রায় সমপর্যায়ের। এবার যেমন এক মানহানির মামলায় জেতার পর ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রাপ্ত সমুদয় অর্থ মেসি দান করলেন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘লা র‍্যাজন’-এর প্রতিবেদক আলফোনসো ইউসিয়া এর আগে এক প্রতিবেদনে অভিযোগ করেছিলেন মেসি ডোপিং করেন! প্রতিবাদে মামলা করেছিলেন মেসি। গত বছরের ৭ জুলাই সেই মামলায় জয়ের মুখও দেখেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। কাতালান অঞ্চলটির আদালত রায় দিয়েছিলেন, মেসির বিপক্ষে সেই প্রতিবেদনে যে অভিযোগ করা হয়েছিল, তা মিথ্যা এবং ‘অপ্রয়োজনীয় আর অসংগত।’

এক বছরের বেশি সময় পর মানহানির সেই মামলায় ক্ষতিপূরণ বাবদ নগদ ৭০ হাজার ইউরো পেয়েছেন মেসি। আর্জেন্টাইন এ তারকা গত বছরই অনুরোধ করেছিলেন, এ মামলা থেকে কোনো অর্থ এলে তা কোনো দাতব্য সংস্থায় দান করার জন্য। সে অনুযায়ী মেসি পুরো অর্থই দান করেছেন আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা ‘ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস’-এর তহবিলে। সংস্থাটি যুদ্ধবিধ্বস্ত এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোতে রোগাক্রান্ত শিশুদের চিকিৎসায় কাজ করে থাকে। বার্সেলোনা ফরোয়ার্ডের দানের এ খবরটি বৃহস্পতিবার নিশ্চিত করেছে খেলোয়াড়টির টিম ম্যানেজমেন্ট ।

সমাজের দুস্থ ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়ানোর ব্যাপারটি মেসির জন্য নতুন কিছু নয়। গত মে মাসে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার স্কুলগুলোতে ২০টি শ্রেণিকক্ষ তৈরি করেছে ‘মেসি ফাউন্ডেশন’। এ ছাড়া ইউনিসেফ ও অন্যান্য মাধ্যমের সাহায্যে সব সময়ই দুস্থ শিশুদের পাশে দাঁড়ান ৩০ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। সূত্র: স্পোর্ত।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »