বার্তাবাংলা ডেস্ক »

kamrujjamanবার্তবাংলা রিপোর্ট :: মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ কামারুজ্জামানের বিরুদ্ধে যুক্তিতর্ক (আর্গুমেন্ট) উপস্থাপন শুরু হবে আগামী ২৪ মার্চ রোববার থেকে। কামারুজ্জামানের পক্ষে ৫ম ও শেষ সাফাই সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের দিনও রোববার পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

ওই দিন আসামিপক্ষ সাফাই সাক্ষী হাজির করতে পারলে আগে সাফাই সাক্ষ্যগ্রহণ করে পরে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হবে। আর সাফাই সাক্ষী না আসলে সাফাই সাক্ষ্যগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার এ আদেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ টাইব্যুনালে-২।

বৃহস্পতিবার কামারুজ্জামানের পক্ষে ৫ম ও শেষ সাফাই সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু কামারুজ্জামানের আইনজীবী ব্যারিস্টার এহসান এ সিদ্দিকী ফের সময়ের আবেদন জানিয়ে বলেন, সাক্ষী হাজির করা সম্ভব হয়নি।

চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল রোববার শেষবারের মতো সাফাই সাক্ষ্যগ্রহণের দিন পুনর্নির্ধারণ করে ওই দিনই মামলাটির যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের দিন ধার্য করেন।

এর মাধ্যমে মামলাটির বিচারিক প্রক্রিয়ার শেষ ধাপ যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হতে যাচ্ছে। প্রথমে কামারুজ্জামানের বিরুদ্ধে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করবেন রাষ্ট্রপক্ষ। এর পর কামারুজ্জামানের পক্ষে আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হলে আইন অনুসারে মামলার রায়ের তারিখ ঘোষণা করবেন ট্রাইব্যুনাল।

কামারুজ্জামানের পক্ষে এর আগে আরও ৪ জন সাফাই সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন মোঃ আরশেদ আলী, আশকর আলী, এবং কামারুজ্জামানের বড় ছেলে হাসান ইকবাল ও বড় ভাই কফিল উদ্দিন। তাদের জেরা সম্পন্ন করেছেন রাষ্ট্রপক্ষ।

কামারুজ্জামানের পক্ষে ৫ জন সাক্ষী সাফাই সাক্ষ্য দিতে পারবেন বলে নির্ধারণ করে দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »