রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার দাবি জানিয়েছে বিএনপি

মানবিক দিক বিবেচনায় মিয়ানমারে সেনা অভিযানের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ার পাশাপাশি সঙ্কট সমাধানে দেশটির সরকারকে বাধ্য করতে ‘সক্রিয় কূটনৈতিক তৎপরতা’ নেওয়ার দাবি জানিয়েছে বিএনপি।
শুক্রবার সকালে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন বন্ধের দাবিতে আয়োজিত এক ঘণ্টার মানববন্ধন কর্মসূচিতে এ দাবি জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, “আমাদের খুব সুস্পষ্ট দাবি যে, রোহিঙ্গাদেরকে আশ্রয় দেওয়া হোক; তাদের খাদ্য, নিরাপত্তা, চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হোক। একইসঙ্গে সক্রিয় কূটনৈতিক তৎপরতার মধ্য দিয়ে এই রোহিঙ্গাদেরকে তাদের দেশে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারকে বাধ্য করা হোক।

“ওরা হিন্দু না মুসলিম- এটা জিজ্ঞাসা করার প্রয়োজন নেই, ওরা মানুষ। সেই মানবতার বিরুদ্ধে আজকে মিয়ানমার সরকার যুদ্ধ শুরু করেছে, তাদের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। আসুন, আমরা আজকে জনমত সংগঠিত করে সমগ্র বাংলাদেশকে ঐক্যবদ্ধ করে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হই, তারা যেন এই গণহত্যা বন্ধ করে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিয়ে যায়।”

মিয়ানমারের হেলিকপ্টার বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশের সীমানা লঙ্ঘন করার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে মির্জা ফখরুল বলেন, “যখন তাদের বিমান আকাশ সীমা লঙ্ঘন করে তখন এই সরকার চুপ করে থাকে। এটা হচ্ছে এদের নতজানু পররাষ্ট্র নীতির পরিচায়ক।”