আবদুল জব্বারের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা শহীদ মিনারে

একাত্তরের কণ্ঠযোদ্ধা জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী আবদুল জব্বারের মরদেহ বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হবে সর্বস্তরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য।
বুধবার শিল্পীর মৃত্যুর পর সংস্কৃতিমন্ত্রী আসুদজ্জামান নূর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে জানাজার পর এই শিল্পীকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে মারা যান স্বাধীনতা পুরস্কার ও একুশে পদকজয়ী কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার। কিডনি জটিলতার পাশাপাশি হৃদযন্ত্র ও প্রোস্টেটের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি।
হাসপাতাল থেকে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আবদুল জব্বারের মরদেহ মোহাম্মদপুরের মারকাজুল ইসলাম মসজিদে নেওয়া হয় গোসলের জন্য। এরপর কফিন নেওয়া হবে ভুতের গলিতে তার বাসায়। রাতে মরদেহ রাখা হবে বারডেম হাসপাতালের হিমঘরে।
সংস্কৃতিমন্ত্রী নূর জানান, সর্বস্তরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য আবদুল জব্বারের মরদেহ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হবে। জোহরের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে হবে জানাজা।

পরে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে একাত্তরের এই কণ্ঠযোদ্ধাকে।

সালাম সালাম হাজার সালাম, জয় বাংলা বাংলার জয়, ওরে নীল দরিয়া, তুমি কি দেখেছ কভু জীবনের পরাজয়-এর মত অসংখ্য গানের জন্য বাংলাদেশের মানুষ আবদুল জব্বারকে মনে রাখবে বহুদিন।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই শিল্পীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।