সালমান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন শাবনূর » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে আমেরিকা প্রবাসী রাবেয়া সুলতানা রুবি ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে আলোচনার ঝড় তুলেছেন। এ ঘটনায় ফের নতুন করে তার রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে সরগরম হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি চলচ্চিত্রের অনেক তারকাও এখন বিষয়টি নিয়ে সরব।

সালমান শাহ’র মৃত্যুর দীর্ঘ ২১ বছর পর রহস্য যখন আবারও ঘণীভূত হচ্ছে, নতুন মোড় নিচ্ছে ঠিক তখনই এফডিসি প্রাঙ্গণে তারকাদের মুখেও সালমান প্রসঙ্গে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। বাদ যাননি সালমানের মৃত্যু মামলার আসামি খলনায়ক ডনও।

সালমান শাহ’র সবচেয়ে কাছের মানুষ ও সবসময়ের সঙ্গী হিসেবে পরিচিত খল-অভিনেতা ডন এক ইউটিউব ভিডিওতে বলেছেন, আমি ফেসবুক লাইভে অনবরত নানা তথ্য দেওয়া বৃদ্ধা মহিলাকে চিনি না।

শুধু ডন নয়, সালমান প্রসঙ্গে কথা বলেছেন তার সমসাময়িক প্রতিদ্বন্দ্বী সুপারস্টার ওমর সানীও। তিনি বলেন, আমি নির্দ্বিধায় বলছি, সালমান শাহ’র জনপ্রিয়তার কাছে আমি হেরে গেছি। বারবার মনে পড়ে আমার ওর মুখটি। তবে সালমান শাহ’র জীবনে যদি কোনো ভুল থাকে তা ছিল ওর সামিরাকে বিয়ে করা। এটা আমার ব্যক্তিগত মত।

সম্প্রতি একটি এফএম স্টেশনের ইন্টারভিউতে সালমান শাহ প্রসঙ্গ টানতেই এ কথা বলেন চিত্রনায়ক ওমর সানী।

অন্যদিকে, শিল্পী সমিতির ঘরেও একইরকম গুঞ্জন শোনা যায়। শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন, সালমান শাহ’র মৃত্যু আমাদের এই চলচ্চিত্র সমাজের বড় ক্ষতি। তবে সম্প্রতি এসব তথ্য ফাঁস নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না। শুধু এটুকু বলবো, সত্য যাই হোক না কেন তা যে কখনও চাপা থাকে না সেটিই উপরওয়ালা আবারও প্রমাণ দিয়ে দিলেন।

তবে এ সকল ইস্যু নিয়ে এরই ভেতরে সালমান শাহকে জড়িয়ে শাবনূরের প্রসঙ্গ টানা হচ্ছে। তার সঙ্গে মেসেঞ্জারে কথা বলতেই তিনি বলেন, আমার যেকোনো কাজ প্রসঙ্গে কথা বলতে পারেন। কিন্তু সালমান শাহ প্রসঙ্গে আমি এ সময় আর কোনো কথা বলতে চাই না। ও আমার বন্ধু, কলিগ ছিল। তাই ওর চলে যাওয়া আমার জন্য একইরকম কষ্টের। কিন্তু সাম্প্রতিক তথ্য ফাঁস নিয়ে আমার কোনো মন্তব্য নেই।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

Welcome to BartaBangla Desk! BartaBangla (BartaBangla.com) is one of the most popular Bengali news-portal, which is jointly operating from Europe & Bangladesh. We have certain number of quality journalists in our team. We started our journey in 2011 and already got huge readers with us around the globe. Thanks again being with us!

মন্তব্য করুন »