বার্তাবাংলা ডেস্ক »

খালি চোখে দেখলে সত্যিই মনে হবে এক সঙ্গে তিনটি দায়িত্ব পালন করা কঠিন। শাসক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কিশোরগঞ্জ-৬ আসনের সাংসদ হিসেবে নিয়মিতই নির্বাচনী এলাকায় যেতে হয়। এলাকার গণ মানুষের নেতা হিসেবে নানা উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনার পাশাপাশি এলাকার মানুষজনের কাছে প্রায়ই ছুটে যেতে হয়।

এছাড়া বেক্সিমকো ফার্মার মত আন্তর্জাতিক মানের ঔষধ প্রস্তুত ও বাজারজাতকরণ প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী হিসেবেও মাথায় পাহাড় সমান দায়িত্বের বোঝা। এর পাশাপাশি দেশের শীর্ষ ক্রীড়া ফেডারেশন বিসিবির শীর্ষ পদ এক সঙ্গে সুষ্ঠ সূচারু রূপে সব দায়িত্ব সমান ভাবে পালন করা সহজ কাজ নয়।

তাই মাঝে শোনা যাচ্ছিল নাজমুল হাসান পাপন হয়তো বেক্সিমকোর চাকুরী ছেড়ে দেবেন। কিন্তু এবার জানা গেল তিনি বিসিবি সভাপতির পদ ছাড়তেই আগ্রহী। এদিকে সব ঠিক থাকলে আগামী মাসে বিসিবির এজিএম ইজিএম। নির্বাচনের ডামাডোলও বাজছে।

 

এ সময় নাজমুল হাসান পাপনের বোর্ড প্রধান পদ থেকে সড়ে দাঁড়ানোর ইচ্ছে প্রকাশ নতুন মাত্রার সংযোজন অবশ্যই। বলার অপেক্ষা রাখে না, বর্তমান বোর্ডে নাজমুল হাসান পাপনের অবস্থান প্রায় শতভাগ সুসংহত। বর্তমান পরিচালক পর্ষদে তার জনপ্রিয়তা সর্বোচ্চ। একজন প্রতিদ্বন্দ্বীও নেই। সবাই নাজমুল হাসান পাপনের নেতৃত্বের প্রতি অবিচল আস্থা রাখেন। এখন পর্যন্ত বোর্ডে তার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রকাশ বহুদূরে, একটি কটু কথাও শোনা যায়নি।

তবে এরকম জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় শুধু দায়িত্ব শতভাগ পালন করতে পারবেন না এমন অজুহাতে তার বিসিবি প্রধানের পদ থেকে সড়ে দাঁড়ানোর ইচ্ছে প্রকাশ, নতুন প্রশ্নের উদ্বেগ ঘটায় বৈকি। তাৎক্ষণিকভাবে বোর্ড পরিচালকদের কেউ এ নিয়ে কোন মন্তব্য না করলেও একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। বোর্ডের নির্ভরযোগ্য এক সূত্র আভাস দিয়েছে, নাজমুল হাসান পাপন বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসির সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে যাচ্ছেন। সম্ভবত আ হ ম মোস্তফা কামালের মত নাজমুল হাসান পাপনও ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসির শীর্ষ পদে আগ্রহী।

আইসিসির নিয়ম ও রীতি অনুযায়ী সভাপতি হবার আগে দুই বছর সহ-সভাপতি পদে থাকতে হয়। একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, নাজমুল হাসান পাপন আইসিসির পরবর্তী সহ-সভাপতি হতে চাচ্ছেন।

বলার অপেক্ষা রাখে না, আইসিসির প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী সহ-সভাপতি বা সভাপতি হতে হলে কোন দেশের বোর্ডের শীর্ষ পদে থাকা যাবে না। অর্থাৎ বিসিবি সভাপতি পদে থেকে আইসিসির বড় পদ লাভের কোনই সুযোগ ও সম্ভাবনা নেই। তাই হয়তো আগে ভাগেই বিসিবি প্রধান পদ থেকে সড়ে দাঁড়ানোর চিন্তা ভাবনা পাপনের।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »