বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

সুপ্রিম কোর্টের রায়ে অযোগ্য ঘোষিত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের পদত্যাগের পর উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন দেশটির শীর্ষ বিরোধী নেতারা। এই রায়কে পাকিস্তানের জন্য নতুন যুগের সূচনা বলছেন তাঁরা। নওয়াজ ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্তের কারণে আদালত এবং যৌথ তদন্ত দলকে (জেআইটি) ধন্যবাদ জানান বিরোধীরা।

নওয়াজের পানামা কেলেঙ্কারির বিচারের দাবিতে অন্যতম সক্রিয় ছিলেন সাবেক ক্রিকেটার এবং বিরোধী দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ইমরান খান। রায়ের পর গতকাল শুক্রবার দলের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আজ পাকিস্তানের বিজয় হয়েছে। এই রায় পাকিস্তানের নবযুগের সূচনা করেছে।

এই রায় উদ্‌যাপনের পর কাল রোববার রাওয়ালপিন্ডিতে সমাবেশ করবে তাঁর দল। সেখান থেকে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

তবে এই রায়ের ফলে নওয়াজ শরিফের সব শেষ হয়ে যাচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন তাঁর মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। পানামা পেপারসে অর্থ পাচারে তাঁর সংশ্লিষ্টতার বিষয়টিও এসেছে। রায়ের প্রতিক্রিয়ায় টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, ‘আজকের দিনটি নওয়াজ শরিফের জন্য ২০১৮ সালে আরও বড় বিজয়ের দুয়ার খুলে দিল। তিনি অপ্রতিরোধ্য হবেন।’

পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) নেতা কামার জামান কাইরা বলেন, প্রত্যাশা অনুযায়ী রায় হয়েছে। এমনটাই হওয়ার কথা ছিল। এতে সব কটি বিরোধী দলের ভূমিকা রয়েছে। তবে পিটিআই এবং ইমরান খানের কৃতিত্ব বেশি। তিনি এ বিষয়টিকে আদালত পর্যন্ত নিয়ে গেছেন। আইনি লড়াই করেছেন।

পিটিআইয়ের গুরুত্বপূর্ণ নেতা জাহাঙ্গীর তারিন বলেন, ‘আদালতের আজকের সিদ্ধান্ত পিটিআই এবং জাতির জয়। গণতন্ত্রের সেরা সময় এটি। আমি সবাইকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

পাকিস্তানের জামায়াতে-ই-ইসলামির সিরাজুল হক বলেন, ‘গত বছরের ১৬ আগস্ট আমি সর্বপ্রথম পিটিশন করি আদালতে। তখন অনেকে এ নিয়ে হাসিঠাট্টা করেছিল। তবে আমরাই সফল হয়েছি। আদালত, সাংবাদিক, আইনজীবী, রাজনৈতিক কর্মী যাঁরা আমাদের সমর্থন দিয়েছেন, সবাইকে অভিনন্দন জানাই।’

রাজনৈতিক নেতাদের পাশাপাশি টুইটে পক্ষে-বিপক্ষে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সাংবাদিকেরাও।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »