দ্বিতীয় ইনিংসে ৫২ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ

বার্তবাংলা রিপোর্ট :: দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৯ ওভার ব্যাট করে চার উইকেটে ১৫৮ রান করেছে বাংলাদেশ। ক্রিকেটীয় ব্যাখ্যায় দারুণ খেলেছে। কিন্তু এই রানের বেশি অংশে বাংলাদেশের অধিকার নেই। শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংসে ১০৬ রানে এগিয়ে থাকায় মুশফিকুর রহিমদের দ্বিতীয় ইনিংস থেকে তা বাদ দিয়ে লিড গণ্য হবে। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ এগিয়ে গেছে ৫২ রানে। এর সঙ্গে চতুর্থদিনের সংগ্রহের যোগফল দাঁড়াবে প্রতিপক্ষের টার্গেট।

বাংলাদেশ: প্রথম ইনিংস- ২৪০, দ্বিতীয় ইনিংস- ১৫৮/৪ (৬৯ ওভার)
শ্রীলঙ্কা: প্রথম ইনিংস- ৩৪৬

উদ্বোধনী জুটিতে ৯১ রান হওয়ার পর সাজঘরে ফেরেন তামিম ইকবাল। ১০৭ বলে চারটি চার ও একটি ছয়ের মারে ৫৯ রান করে শামিন্দা এরাঙ্গা‘র বলে বোল্ড হন বাঁহাতি ওপেনার। টেস্টে এটি তার দ্বাদশ হাফ সেঞ্চুরি।

প্রথম টেস্টে রেকর্ড ১৯০ রান করা মোহাম্মদ আশরাফুল দ্বিতীয় টেস্টে পুরোপুরি ব্যর্থ। কলম্বোর প্রথম ইনিংসে ১৬ রানে রান-আউট হওয়া লিটল মাস্টার দ্বিতীয় ইনিংসে চার রান তুলে উইকেট দিয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার রঙ্গনা হেরাথকে।

ওপেনার জহুরুল ইসলামের সঙ্গে মমিনুল হকের জুটি ৪৭ রানের। ১৭০ বলে ৪৮ রান নিয়ে হেরাথের দ্বিতীয় শিকার হন জহুরুল। উইকেটে এসে দাঁড়াতেই পারেননি মাহমুদউল্লাহ। রানের খাতা খোলার আগেই হেরাথ তাকে সাজঘরের পথ দেখান। মমিনুল এবং মুশফিক অবিচ্ছিন্ন থেকে তৃতীয় দিন শেষ করেছেন। মমিনুল ৩৭ রানে আর মুশফিক ৭ রানে অপরাজিত।

কলম্বো টেস্টে সোমবার (তৃতীয় দিন) সকালটা দারুণ ছিল বাংলাদেশের। ৫২ রানের ভেতরে শেষ চার উইকেট তুলে নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে অল-আউট করে ৩৪৬ রানে। স্বাগতিক দল লিড পায় ১০৬ রানের।

আগের দিন ছয় উইকেটে করা ২৯৪ রান নিয়ে খেলতে নামে শ্রীলঙ্কা। দলের স্কোরে ২২ রান যোগ হতে জুটি ভাঙ্গে। কুমার সাঙ্গাকারা ১৩৯ রানে সাজঘরে ফেরেন আবুল হাসানের দ্বিতীয় শিকার হয়ে। দ্বিতীয়দিন শেষে ১২৭ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। বাকি তিন উইকেট তুলে নিতে বেগ পেতে হয়নি বাংলাদেশি বোলারদের। রঙ্গনা হেরাথকে তিন রানে বোল্ড-আউট করেন সোহাগ গাজী। কুলাসেকারাকেও ব্যক্তিগত ২২ রানে ফেরান ডানহাতি এই অফ স্পিনার। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে এরাঙ্গার উইকেট নিয়েছেন আরেক ডানহাতি অফ-স্পিনার মাহমুদউল্লাহ।

তিন পেসার রবিউল ইসলাম, আবুল হাসান ও রুবেল হোসেন দুটি করে, অফ-স্পিনার সোহাগ গাজী তিনটি এবং মাহমুদউল্লাহ একটি উইকেট নেন।