বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

গাজীপুরের বোর্ডবাজারের বাদে কলেমেশ্বর এলাকা থেকে অপহরণের চার দিন পর গতকাল শুক্রবার এক শিশুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ওই শিশুর নাম বীথি আক্তার (৫)। উদ্ধারের পর তার লাশ শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বীথি আক্তার শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নড়িয়াবাজার এলাকার বিল্লাল হোসেনের একমাত্র মেয়ে। বিল্লাল হোসেন মালয়েশিয়াপ্রবাসী। বীথির মা নাসিমা আক্তার গৃহিণী। নাসিমার বাবা দুলু সরদার বোর্ডবাজার এলাকায় ভাঙারির ব্যবসা করেন। স্বামীর অবর্তমানে নাসিমা বাবার সঙ্গে বাদে কলেমেশ্বর এলাকার একটি বাড়ির দোতলায় প্রায় এক বছর আগে ভাড়ায় ওঠেন। বীথি স্থানীয় হাসেন আলী কিন্ডারগার্টেন স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

দুলু সরদার বলেন, সোমবার বিকেলে বীথি খেলতে বাসার নিচে নেমে নিখোঁজ হয়। এরপর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। একপর্যায়ে মুঠোফোনে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা তাঁদের কাছে বীথির মুক্তিপণ হিসেবে চার লাখ টাকা দাবি করেন। পরদিন তিনি বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় মামলা করেন। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাঁদের বাসার পেছনের দিকে একটি বস্তা দেখা যায়। বস্তা থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। গতকাল ভোরে পুলিশ বস্তায় বীথির লাশ পায়।

জয়দেবপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাদেকুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, শিশুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। লাশের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের চিহ্ন আছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সন্দেহভাজন আটজনকে আটক করা হয়েছে।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »