বার্তাবাংলা ডেস্ক »

শাহাদাত হোসেনকে সভাপতি ও আবুল হাসেম বকরকে সাধারণ সম্পাদক করে আংশিক কমিটি ঘোষণার একবছর পর চট্টগ্রাম মহানগরে ২৭৫ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দিয়েছে বিএনপি। মঙ্গলবার দলের সহ দপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমেদের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেন। দুই দশক পর মহানগরের এ্ পূর্ণাঙ্গ কমিটি হল।

পূর্ণাঙ্গ কমিটির সিনিয়র সহসভাপতি হয়েছেন আবু সুফিয়ান। আর সহ-সভাপতি পদে এসেছেন নগর বিএনপির ২৯ নেতা।

কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন সৈয়দ শিহাবউদ্দিন আলম।

নতুন কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদকরা হচ্ছেন- মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, কামরুল ইসলাম কামরুল ও হাজী মো. তৈয়ব।

আর দপ্তর সম্পাদক করা হয়েছে টিংকু দাশকে।

সহ-সভাপতি পদের ২৯ জন হলেন- এম এ আজিজ, মো. মিয়া ভোলা, এম এ সবুর, শামসুল আলম, আবদুস সাত্তার, মোহাম্মদ আলী, সৈয়দ আজম উদ্দিন, এস কে খোদা তোতন, জয়নাল আবেদীন জিয়া, নাজিমুর রহমান, মো. আলী, সবুক্তগীন সিদ্দিকী মুক্কী, জামাল আহমেদ, মোরশেদ কাদেরী, আশরাফ চৌধুরী, এম এ হালিম, হারুন জামাল, শফিকুর রহমান স্বপন, সৈয়দ আহমেদ, সোহরাব কোম্পানি, কমিশনার মাহবুবুল আলম, কমিশনার নাজিমউদ্দিন, মফিজুল হক ভুঁইয়া, নিয়াজ মোহাম্মদ খান, কামাল উদ্দিন কনট্রাক্টর, নুরুল আলম রাজু, ইকবাল চৌধুরী, আবদুস সাত্তার সারোয়ার ও এস এম আবুল ফয়েজ।

নতুন কমিটিতে ১৩ জনকে যুগ্ম সম্পাদক করা হয়েছে। এরা হলেন, এস এস সাইফুল আলম, কাজী বেলাল উদ্দিন, শাহ আলম, এস্কান্দর মির্জা, আর ইউ চৌধুরী শাহিন, ইয়াসিন চৌধুরী লিটন, আবদুল মান্নান, আহমেদুল আজম চৌধুরী রাসেল, জাহাঙ্গীর আলম দুলাল, মো. আবুল হাশেম, মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, আনোয়ার হোসেন লিপু ও গাজী সিরাজ উল্লাহ।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি

এছাড়া প্রচার সম্পাদক হচ্ছেন শিহাবউদ্দিন, প্রকাশনা সম্পাদক মো. আলী মিঠু, আইন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক কমান্ডার সাহাবুদ্দিন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রাহেলা জামান, যুব বিষয়ক সম্পাদক আব্বাস রশীদ, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মাইনুদ্দিন মো. শহীদ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক গাজী আইয়ুব, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল আলম পান্না, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এম আই চৌধুরী মামুন, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এম এ হামিদ।

প্রবাসী কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম তালুকদার, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাজী নুরুল আখতার, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক কামরুল ইসলাম সাজ্জাদ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ডা. সারোয়ার আলম, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আমিন মাহমুদ, শিশু বিষয়ক সম্পাদক কামরুন্নাহার দস্তগীর, ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক মীর কাউসার এলাহী, ক্ষুদ্র ঋণ বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আকবর কাজল, ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ইব্রাহীম বাচ্চু, স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক কামাল উদ্দিন এবং বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন হেলাল চৌধুরী।

ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্প বিষয়ক সম্পাদক আবদুল নবী প্রিন্স, তাঁতী বিষয়ক সম্পাদক মো. আলী, মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক মো. বখতিয়ার, উপজাতি বিষয়ক সম্পাদক ঝন্টু বড়ুয়া, অর্থনীতি বিষয়ক সম্পাদক মশিউল আলম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. ইসমাইল, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মজিবুল হক, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক ইয়াকুব চৌধুরী, জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক নুরুজ্জামান, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পারভীন আখতার চৌধুরী, গ্রাম সরকার বিষয়ক সম্পাদক আবদুল হাকিম, শিল্প বিষয়ক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, নগর উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক জিয়াউদ্দিন খালেদ, আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক ইউসুফ জামাল ও হকার্স বিষয়ক সম্পাদক আবদুল বাতেন।

সহ-সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ১৮ জন। এরা হলেন- নাজিম উদ্দিন, শামসুল আলম, খোরশেদ আলম, সালাহউদ্দিন, শামসুল আলম, জিএম আইয়ুব খান, এস এম জি আকবর, শাহেদ বক্স, ইসহাক চৌধুরী আলিম, মাহবুবুল হক, শাহ আলম, ইয়াসিন চৌধুরী আসু, আবু জহুর, জহির আহমেদ, জাহাঙ্গীর আলম, হাজী বেলাল, শহীদ মো. চৌধুরী ও ইব্রাহিম চৌধুরী।

২৭৫ সদস্যের কমিটিতে সহ সম্পাদক ৫০ জন ও নির্বাহী কমিটির সদস্য ১০৬ জন রয়েছে।

সর্বশেষ চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি ছিলেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন। খসরু গত বছর দলের জাতীয় কাউন্সিলের পর সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হন।

এরপর ২০১৬ সালের ৬ অগাস্ট শাহাদাত হোসেনকে সভাপতি ও আবুল হাসেম বকরকে সাধারণ সম্পাদক করে চট্টগ্রাম মহানগরের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।

১৬ সদস্যের উপদেষ্টামণ্ডলী

মহানগর কমিটির উপদেষ্টা হিসেবে স্থান পেয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম, দেলোয়ার হোসেন, শাহজাদা এনায়েতুল্লাহ খান, এম এ শুক্কুর, ওমর ফারুক, আবুল হোসেন, গোলাম মূর্তজা হারুন, আবু সুফিয়ান, জানে আলম, আবুল হাশেম চৌধুরী, নসরুল কাদির, হাসান মাহমুদ, সিদ্দিক আহমেদ চৌধুরী, আবুল কালাম আজাদ, আবদুস সাত্তার সারোয়ার, হাসান চৌধুরী, বাবর মিয়া।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »