বৃষ্টিমুখর দিনে করুণাময় গোস্বামীর শেষযাত্রা

শ্রদ্ধায়, ভালোবাসায় আর চোখের জলে সংগীত গবেষক করুণাময় গোস্বামীকে শেষ বিদায় জানালেন অগণিত ভক্ত-শুভার্থীরা। আজ সোমবার সকাল থেকে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে কয়েক দফা শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়। বৃষ্টিস্নাত দিনেও অগণিত মানুষ এসেছিল সংগীতে নিবেদিতপ্রাণ এই ব্যক্তিত্বকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে। এসেছিল ভালোবাসা জানাতে।

সোমবার সকালে শমরিতা হাসপাতালের হিমঘর থেকে অধ্যাপক করুণাময় গোস্বামীর মরদেহ বাংলা একাডেমিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য আনা হয়। এরপর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বৃষ্টি উপেক্ষা করে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট পরিচালিত আয়োজনে শ্রদ্ধা জানাতে আসে অগণিত মানুষ। সেখান থেকে তাঁর শবদেহ নিয়ে যাওয়া হয় নারায়ণগঞ্জে তাঁর দীর্ঘদিনের কর্মস্থল তোলারাম কলেজে। সেখানে শিক্ষক-ছাত্রসহ আশপাশের স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করে। এরপর শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ও পরে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হয় তাঁর মরদেহ। এ সময় নারায়ণগঞ্জের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রাণপুরুষ হিসেবে পরিচিত এই ব্যক্তিত্বকে শ্রদ্ধা জানায় নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ। এরপর বিকেল সাড়ে পাঁচটায় নারায়ণগঞ্জ সদরের মাজদাইর শ্মশানে তাঁকে দাহ করা হয়। শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় উপস্থিত ছিলেন করুণাময় গোস্বামীর স্ত্রী শ্রিপা দেবী, ছেলে সায়ন্তন গোস্বামী ও মেয়ে তিথি গোস্বামী।

এ ধরনের আরও কন্টেন্ট

সকালে বাংলা একাডেমিতে করুণাময় গোস্বামীর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন ইমেরিটাস অধ্যাপক ও বাংলা একাডেমির সভাপতি আনিসুজ্জামান, একাডেমির সচিব আনোয়ার হোসেনসহ বাংলা একাডেমির অন্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, প্রফেসর ইমেরিটাস ভাষাসংগ্রামী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, সংস্কৃতিসচিব ইব্রাহীম হোসেন খান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, মামুনুর রশীদ, মফিদুল হক, আবুল হাসনাত, নজরুল ইনস্টিটিউটের পরিচালক আবদুর রাজ্জাক ভুইয়া, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, সাধারণ সম্পাদক হাসান আরিফ প্রমুখ। শ্রদ্ধাঞ্জলি পর্বটি সঞ্চালনা করেন মানজার চৌধুরী।

যেসব সংগঠন শ্রদ্ধা নিবেদন করে: মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, নজরুল ইনস্টিটিউট, শিল্পকলা একাডেমি, ছায়ানট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ, সর্বজনীন পূজা কমিটির মহানগর শাখা, জগন্নাথ হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন, মহিলা পরিষদ, উদীচী, সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদ, ভিন্ন ধারা, বিএসবি ক্যামব্রিয়ান, কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট, বাংলাদেশ বেতার নিজস্ব শিল্পী সংস্থা, রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদ, গুরুদয়াল কলেজ কিশোরগঞ্জ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুরা প্রভৃতি সংগঠন করুণাময় গোস্বামীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

এ ধরনের আরও কন্টেন্ট