দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ভারত

ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের গল্প প্রথমার্ধেই লেখা হয়ে গেছে। অবিশ্বাস্য কোনো বোলিং নৈপুণ্যই শুধু বাঁচাতে পারত দক্ষিণ আফ্রিকাকে। কিন্তু স্বাভাবিক বোলিংও করতে পারল না প্রোটিয়ারা। ৭২ বল আর ৮ উইকেট হাতে রেখে শেষ চারে চলে গেল ভারত। যেখানে তাদের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ।

এ ধরনের আরও কন্টেন্ট

১৯২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা ভারত ২৩ রানে হারিয়েছিল প্রথম উইকেট। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেট জুটিতেই দক্ষিণ আফ্রিকার সব আশা শেষ হয়ে যায়। ধাওয়ান-কোহলির ১২৮ রানের জুটিতে ১ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান তুলে ফেলে ভারত। ধাওয়ান ৭৮ রান করে ফিরে গেলেও কোহলি দলকে জিতিয়ে ফেরেন ৭৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে। অন্য প্রান্তে ২৩ রানে অপরাজিত ছিলেন যুবরাজ সিং।
রোহিত শর্মা আউট হওয়ার পর ম্যাচটি জমলেও জমতে পারে বলে মনে হচ্ছিল। কিন্তু রোহিতকে উইকেটকিপার ডি ককের ক্যাচ বানান মরনে মরকেল। কিন্তু এরপর যেন সব ক্ষমতা শেষ হয়ে গেল প্রোটিয়া বোলারের। ধাওয়ান ও কোহলির ব্যাটের সামনে অসহায় হয়ে পড়লেন কাগিসো রাবাদা, মরকেলরা। যে কয়েকটা ‘হাফ-চান্স’ এসেছিল, সেগুলোও নিতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। কোহলি-ধাওয়ানও ধীরে সুস্থের লক্ষ্যের দিকে এগিয়েছেন। মাত্র ১৯২ রানের লক্ষ্যে ঝুঁকি নেওয়ার দরকার হয়নি তাঁদের।
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১২৫ রানের ইনিংস খেলেও পরাজিত দলে নিজেকে আবিষ্কার করেছিলেন ধাওয়ান। কিন্তু এবার ইমরান তাহিরের বলে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি থেকে ২২ রান দূরে থাকতে আউট হলেও পরাজয়ের শেষ শঙ্কা যেন মুছে ফেলেন। বাকি কাজটা সেরেছে কোহলি-যুবরাজের ৪২ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি।

এ ধরনের আরও কন্টেন্ট