ইসরাত পুনম »

রান্নায় মশলা দরকার হয়। মশলা যত টাটকা, ঘ্রাণ তত বেশি। কিন্তু দীর্ঘদিন মশলা ঘরে রাখার ফলে তা নষ্ট হয়ে যায়। এর ঘ্রাণ চলে যায়। তবে একটু কৌশল করে রাখলেই যেকোনো মশলা ভালো রাখা যাবে দীর্ঘদিন। চলুন জেনে নেয়া যাক-

১. কারিপাতা ও পুদিনা পাতা কয়েক দিন রাখলে শুকিয়ে যায় ও পচে যায়। তাই স্টোর করতে চাইলে ভালো করে শুকিয়ে নিয়ে গুঁড়া করে বোতলে রাখুন। প্রয়োজনের সময় কাজে লাগবে।

২. রসুন বেশি দিন রাখতে অল্প করে বরিক পাউডার ছিটিয়ে মাটির ঢাকনা দেয়া পাত্রে স্টোর করুন। তাজা থাকবে অনেক দিন।

৩. অনেক সময় বেশি পরিমাণে মশলা একসঙ্গে বাটা হয়ে থাকে। বেশি দিন হয়ে গেলে বাটা মশলা থেকে গন্ধ বের হয় এবং নষ্ট হয়ে যায়। তাই বাটা মশলার ওপরে অল্প লবণ ছিটিয়ে নিন। বেশ কদিন ভালো থাকবে।

৪. গরম মশলা ও জিরা রোদের মধ্যে রাখবেন না। এতে মশলার গন্ধ রোদের তাপে নষ্ট হয়ে যায়।

৫. গরম মশলা কাচের বয়ামে ভরে মুখ আটকে রেখে রোদে রাখুন। এতে গরম মশলা ঝরঝরে থাকবে ও গন্ধ ভালো থাকবে।
৬. সুজি বেশি দিন রাখলে এর মধ্যে পোকা হয়। তাই সুজি হালকা ভাজি করে ঠাণ্ডা করুন। এরপর মজুত করুন।

৭. গুঁড়া করা মশলা যেমন- জিরা, ধনিয়া, গোলমরিচ ইত্যাদি মজুত করার আগে হালকা তাপে টেলে নিয়ে ঠাণ্ডা করে কৌটায় রাখুন। অনেক দিন গন্ধ ভালো থাকবে।

৮. ডাল বেশি করে কিনে রেখে দিলে পোকা লেগে যায়। কয়েক ফোঁটা ক্যাস্টর অয়েল ডালে ছিটিয়ে রেখে প্লাস্টিকের বয়ামে ভরে রাখুন। অনেক দিন ডাল ভালো থাকবে।

৯. চা পাতা অনেক দিন স্টোর করার আগে কড়া রোদে শুকিয়ে নিন। বেশি দিন চা পাতা তাজা থাকবে এবং চায়ের স্বাদও ভালো হবে।

১০. পেঁয়াজ একসঙ্গে বেশি কিনলে তা বাঁশ বা প্লাস্টিকের ঝুড়িতে ছড়িয়ে রাখুন। মাঝে মাঝে নেড়ে-চেড়ে দিন। পচা পেঁয়াজ বেছে বের করে নিন। এতে পেঁয়াজ অনেক দিন ভালো থাকবে।

১১. চাল রাখার পাত্রে কয়েকটা শুকনো নিমপাতা রেখে দিন। এতে পোকা লাগবে না।

১২. গম বেশি দিন রেখে দিলে পোকা লাগে। তাই গমের মধ্যে শুকনা মেথি বা শুকনা নিমপাতা দিয়ে মজুত করুন। অনেক দিন ভালো থাকবে গম।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »