আসমা সুলতানা চৈতি »

সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে চুল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। তবে যদি এর যথাযথ যত্ন নেয়া না হয় তবে পড়তে হয় নানা সমস্যায়। একটা সময় অতিরিক্ত চুল পড়ে চুল হয়ে যায় পাতলা। আর একবার চুল পাতলা হওয়া শুরু করলে তা আর সহজে ঘন হয় না। তবে একবারেই যে সম্ভব নয় তা কিন্তু ঠিক না। কিছু ঘরোয়া হেয়ার প্যাকের মাধ্যমে পাতলা চুল ঘন করা সম্ভব। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক চুলের ভলিউম বৃদ্ধি করার প্যাকগুলো সম্পর্কে।

১. স্ট্রবেরি এবং কলার প্যাক
একটি কলা চটকে নিন। আর কিছু স্ট্রবেরি চটকে নিন। কলা এবং স্ট্রবেরির সাথে এক চামচ লেবুর রস এবং এক চামচ টকদই মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি চুলে ব্যবহার করুন। এক দুই ঘন্টা পর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

২. ডিম এবং অ্যালভেরার প্যাক
অ্যালোভেরা এবং ডিমের প্যাক চুলের ভলিউম বাড়াতে সাহায্য করে। একটি ডিম ভালো করে ফেটে নিন। এরসাথে দুই চামচ অ্যালোভেরা জেল এবং আধা চিমটি হলুদের গুঁড়ো মেশান। সবগুলো ভালো করে মিশিয়ে নিন। এটি চুলে ব্যবহার করুন। এটি চুলে ব্যবহার করুন। এক ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

৩. টকদই হেয়ার প্যাক
টকদইয়ের প্রচুর পরিমাণে এনজাইম রয়েছে যা মাথার তালু আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে। এটি চুলের গোড়া মজবুত করে তোলে। এক কাপ টকদই এবং এক চামচ অলিভ অয়েল এর সাথে ১০ চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এবং এক চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি চুলে ব্যবহার করুন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৪. মেথির হেয়ার প্যাক
মেথি চুল পড়া রোধ করে চুলের গোড়া মজবুত করে থাকে। এমনকি মেথি খুশকি দূর করতেও বেশ কার্যকর। কিছু মেথি সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর বেটে পেস্ট তৈরি করুন। এরসাথে এক কাপ টকদই মেশান। মেথি এবং টকদইয়ের প্যাকটি চুলে ব্যবহার করুন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৫. কলার হেয়ার প্যাক
শুধু কলার হেয়ার প্যাকও চুলের গোড়া মজবুত করতে সাহায্য করে। একটি পাকা কলা চটকে পেস্ট তৈরি করুন। এরসাথে দুই চা চামচ অলিভ অয়েল, দুই চামচ লেবুর রস এবং দুই চামচ নারকেল তেল মেশান। সম্পূর্ণ মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৬. স্ট্রবেরি প্যাক
৫-১০ টি স্ট্রবেরি ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এগুলো চটকে নিন। এরসাথে দুই চামচ মধু, দুই চামচ অলিভ অয়েল এবং দুই চামচ বাদাম তেল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই প্যাকটি চুলে ব্যবহার করুন। ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »