ইসরাত পুনম »

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে চলার পথে শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি প্রয়োজন মানসিক প্রশান্তি। আর মানুষের মস্তিষ্ক সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য প্রয়োজন পড়ে পুষ্টির, যা পাওয়া সম্ভব পুষ্টিকর খাবার থেকে। কিছু খাবার আছে যা মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে আপনার মনোযোগ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে। আসুন জেনে নেই থাকার জন্য প্রয়োজন সেই খাবারগুলো সম্পর্কে।

১. ডার্ক চকলেট
অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ডার্ক চকলেট সম্পূর্ণ শরীরের জন্য উপকারী। এতে থাকা ক্যাফিন মানসিক স্বাস্থ্যের ভালো রাখতে সাহায্য করে। এটি নার্ভকে রিল্যাক্স করে উত্তেজনা কমিয়ে দেয়। যা কাজে মনোযোগ দিতে সাহায্য করে। প্রতিদিন এক টুকরো ডার্ক চকলেট খেলে তা আপনার মনোযোগ বৃদ্ধি করবে।

২. পালং শাক
পালংশাকে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেন্ট প্রোটিন রয়েছে যা ক্ষয় হ্রাস করে। হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুল সমীক্ষায় দেখছেন যে, যেসকল নারীরা শাক জাতীয় সবজি গ্রহণ করেন তাদের কোগনিটিভ অনেক ধীর গতিতে হ্রাস পায়, যারা শাক জাতীয় সবজি গ্রহণ করেন তাদের তুলনায়।

৩. বিট
মনোযোগ বৃদ্ধি করতে বিট অতুলনীয়। বিট রক্ত সঞ্চালন বজায় রাখে। মস্তিষ্কে অক্সিজেন প্রবাহ সচল রাখে। প্রতিদিনকার খাদ্য তালিকায় বিটের সালাদ বা তরকারি রাখুন। এটি আপনার মনোযোগ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

৪. গ্রিন টি
গবেষণার অনুযায়ী গ্রিন টি মস্তিষ্কের কাজ ভালোভাবে পরিচালনা করতে সাহায্য করে। ইউনিভার্সিটি অফ ব্যাসেল এক সমীক্ষায় দেখেছে যে, গ্রিন টি মস্তিষ্কের ইলেক্টিক্যাল সংযোগ বৃদ্ধি করে। যারা নিয়মিত গ্রিন টি পান করেন তারা কাজে অধিক মনোযোগ দিতে পারেন। দুই থেকে তিন কাপ গ্রিন টি পান করুন।

৫. পানি
শরীর সুস্থ রাখার জন্য প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করা উচিত। পানি মস্তিষ্কে শক্তি প্রাদান করে থাকে। যার কারণে মস্তিষ্ক সঠিকভাবে কাজ করতে পারে। এটি স্মরণশক্তি বাড়িয়ে চিন্তা করার ক্ষমতা বৃদ্ধি করে থাকে।

৬. কফি
শরীরে ক্লান্তি দূর করতে কফি অতুলনীয়। এই কফি মনোযোগ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে থাকে। কফিতে ক্যাফেইন নামক উপাদান আছে যা রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ ঠিক রেখে কাজে মনোযোগ বৃদ্ধি করে।

৭. বাদাম
বাদামে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে যা মনোযোগ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে থাকে। প্রতিদিন এক আউন্স বাদাম খান আর দেখুন ম্যাজিক। বাদাম থেকে প্রয়োজনীয় অ্যাসেন্সিয়াল অয়েল এবং অ্যামিনো এসিড পাওয়া যায়।

৮. ফ্যাটি মাছ
চর্বিযুক্ত বা তেলযুক্ত মাছ মনোযোগ বৃদ্ধি করতে অনেক কার্যকরী। চর্বিযুক্ত মাছে ওমেগা-৩, ইপিএ, ডিএচএ আছে যা স্মরণশক্তি বৃদ্ধি করে কাজে মনোযোগ নিয়ে আসে। সাধারণত শরীরে ওমেগা-৩ এর অভাব হলে স্মরণশক্তি কমে যায়। মাছে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড আছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »