ধর্ষণের শিকার তরুণীকে হাসপাতালে ফেলে পালালেন যুবক

ধর্ষণের শিকার এক তরুণীকে (২৬) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেঝেতে ফেলে গত শুক্রবার রাতে পালিয়ে গেছেন এক যুবক। যাওয়ার সময় তিনি তরুণীর মুঠোফোন ও স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছেন।

খবর পেয়ে গতকাল শনিবার সকালে মামা-মামি এসে ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেঝে থেকে তরুণীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তির চেষ্টা করলেও ধর্ষণের ঘটনা বলে পারেননি। বিকেলে তাঁকে রাজশাহী মেডিকেলের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করানো হয়।

কিছুটা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী তরুণীর বাবা নেই। মা তাঁকে নিয়ে মামার বাসায় থাকেন। তরুণী বলেন, মুঠোফোনে পরিচয় হওয়া এক যুবক তাঁকে নগরের লক্ষ্মীপুরের এক জায়গায় নিয়ে রাতে ধর্ষণ করেন। প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

জানা গেছে, তরুণীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো যুবকের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ উল্লেখ রয়েছে।

মেয়েটির মামা বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য বাইরে কয়েকটি ক্লিনিকে ভর্তির চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। পরে মেয়েটিকে নগরের বেসরকারি হাসপাতাল ‘সিডিএম’-এ নেওয়া হলে এর ব্যবস্থাপক কোয়েল চৌধুরী তাৎক্ষণিকভাবে মেয়েটির প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। তিনি আইনগত ব্যবস্থা নিতে হলে মেয়েটিকে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানোর পরামর্শ দেন। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রফিকুল ইসলাম বিষয়টি জেনে মেয়েটিকে ওসিসিতে ভর্তির ব্যবস্থা করেন।