ঢামেকে নারীর লাশ রেখে চম্পট

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে এক তৈরি পোশাকশ্রমিকের লাশ রেখে পালিয়েছেন পরিচিতজনরা।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত নারীর নাম সুমি (২০)। তিনি রাজধানীর উত্তরায় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করেন।
রাতে সুমিকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তাঁর পরিচিত কয়েকজন ব্যক্তি। তাঁরা চিকিৎসকে জানান, সুমি হঠাৎ করেই মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এই কথা বলে তাঁরা কৌশলে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান। পরে চিকিৎসক সুমিকে মৃত ঘোষণা করেন।
এদিকে, বোনের মৃত্যুর খবর পেয়ে পোস্তগোলা থেকে হাসপাতালে ছুটে আসেন সুমির ভাই মামুন।
মামুন জানান, সুমি উত্তরা এলাকায় থাকতেন। সেখানে একটি গার্মেন্টে চাকরি করতেন। তাঁদের বাড়ি মাদারীপুর জেলায়। রাতে গ্রাম থেকে তাঁকে মুঠোফোনে জানানো হয়, সুমিকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছে। খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে ছুটে আসেন। কীভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, তা জানা যায়নি।
ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্সের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ হাবিলদার বাবুল মিয়া জানান, সুমির গলায় দাগ আছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে রাখা হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।