বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু পর্বত মাউন্ট এভারেস্টের বিখ্যাত ‘হিলারি স্টেপ’ অংশটি ধসে পড়েছে। ফলে পর্বতারোহীদের কাছে ওই স্থানটি আরও বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে।

পর্বতারোহীদের ধারণা, ২০১৫ সালে নেপালে ভয়াবহ ভূমিকম্পের সময় হিলারি স্টেপ ধসে পড়েছে। এভারেস্টের দক্ষিণ-পূর্ব অংশে আলে পর্বতের খাড়া অংশের কাছাকাছি ১২ মিটারের অংশটি বেরিয়ে থাকত। এভারেস্টের শীর্ষে ওঠার পথে ওটাই ছিল সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। ১৯৫৩ সালে বিশ্বের প্রথম ব্যক্তি হিসেবে স্যার অ্যাডমুন্ড হিলারি প্রথম ওই ধাপে পা রেখেছিলেন। তাঁর নামেই এর নাম রাখা হয় ‘হিলারি স্টেপ’।

ব্রিটিশ পর্বতারোহী টিম মোসডেইল হিলারি স্টেপটি ধসে পড়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ১৬ মে সেখানে পৌঁছানোর পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এ খবর জানান তিনি। বিবিসিকে তিনি বলেন, ‘ওই ধাপটি ধসে যাওয়ার মধ্য দিয়ে একটি যুগের অবসান হলো। এটা এভারেস্টের ইতিহাসের সঙ্গে জড়িত ছিল।’
গত বছরের মে মাসে আমেরিকার হিমালয় ফাউন্ডেশন হিলারি স্টেপের আকারের পরিবর্তন ঘটেছে জানিয়ে ছবি পোস্ট করেছিল। কিন্তু তুষারের কারণে সেটা নিশ্চিত করে বলা কঠিন ছিল। চলতি বছর তুষারপাত কম থাকায় হিলারি স্টেপটি না থাকার বিষয়টি স্পষ্ট হলো।

মোসডেইল তাঁর ফেসবুকে লিখেছেন, ‘গত বছর বিষয়টি বলা হয়েছিল। গত বছরও আমি সেখানে উঠেছিলাম। কিন্তু আমরা নিশ্চিত হতে পারিনি যে ধাপটি আর নেই। কারণ, পুরো এলাকা বরফে আচ্ছাদিত ছিল। তবে এই বছর আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি হিলারি স্টেপ আর নেই।’ মোসডেইল জানান, তাঁর মনে হয়, ২০১৫ সালে নেপালের ভূমিকম্পের শিকার হয়েছে ওই ধাপটি। তবে মাধ্যাকর্ষণের কারণেও এই ধস হয়ে থাকতে পারে।
সূত্র: বিবিসি

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »