ইসরাত পুনম »

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির জন্য করা হয় কত কিছু, ব্যবহার করা হয় কত ফেসপ্যাক এমনকি পার্লারে গিয়ে করা হয় বিউটি ট্রিটমেন্ট। এত কিছু করার পরিবর্তে খাদ্য তালিকায় যোগ করুন কিছু খাবার যা ত্বক সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে, ভিতর থেকে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির করবে। এমন কিছু সুপার ফুড নিয়ে আজকের এই ফিচার।

১. স্ট্রবেরি

স্ট্রবেরিতে প্রচুর পরিমাণ ম্যালিক অ্যাসিড থাকে যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এছাড়া এর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান ত্বক সুস্থ রাখে। স্ট্রবেরি স্মুদি অথবা এক মুঠো স্ট্রবেরি প্রতিদিন খাওয়ার চেষ্টা করুন।

২. টমেটো

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির তালিকায় সবার আগে আসে টমেটোর নাম। টমেটো এবং টমেটোর তৈরি যেকোন খাবার খাদ্য তালিকায় রাখুন। টমেটোতে থাকা লাইকোপিন উপাদান ব্রণ হওয়ার প্রবণতা কমিয়ে দেয়। এটি ব্রণ হওয়ার প্রবণতা হ্রাস করার পাশাপাশি ইউভি রশ্মি হতে ত্বককে রক্ষা করে।

৩. ডাব

ডাবের পানি প্রাকৃতিকভাবে ত্বক নরম কোমল করে থাকে। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। এছাড়া ত্বকের পানিশূন্যতা দূর করে থাকে। প্রতিদিন ডাবের পানি পানের চেষ্টা করুন। এছাড়া ডাবের পানি দিয়ে মুখ ধুতে পারেন। এটি ত্বকের কালো দাগ দূর করে দেয়।

৪. কলা

কলাতে প্রচুর পরিমাণ পটাসিয়াম রয়েছে যা ত্বক ময়েশ্চারাইজ এবং হাইড্রেটেড করে ত্বকে তারুণ্যদীপ্ত উজ্জ্বলতা নিয়ে আসে। কলার প্যাক ত্বকের নমনীয়তা, বলিরেখা পড়া রোধ করে। এমনকি কলার প্যাক ত্বকের কালো দাগ দূর করতেও বেশ কার্যকর।

৫. বিট

অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ বিট এবং বিটের রস ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। এর অ্যানথোসায়ানিনস ত্বকের বলিরেখা প্রতিরোধে করে ত্বকে এক ধরণের গোলাপি আভা নিয়ে আসে। বিট সিদ্ধ করে অথবা সালাদে খেতে পারেন। বিটের রস ঠোঁটে ম্যাসাজ করে লাগাতে পারেন। এটি ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করে দেয়।

৬. লেবু পানি

ত্বকের যত্নে লেবুর উপকারিতা সম্পর্কে কম বেশি সবাই জানে। এর ব্লিচিং উপাদান ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। প্রতিদিন এক গ্লাস লেবু পানি পান করুন, এটি ত্বক থেকে ব্ল্যাক হেডস, ব্রণ হওয়ার প্রবণতা হ্রাস করে।

৭. মাছ

মাছ ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে বেশ কার্যকর। এতে প্রচুর পরিমাণ ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা ত্বকের টেক্সচার উন্নতি করে। তবে ভাজা মাছ খাওয়ার পরিবর্তে রান্না বা সিদ্ধ করে মাছ খাওয়া বেশি উপকারী।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »