বিএনপির ৪ নারী সাংসদসহ আটক ৯ » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

bnp netriবার্তবাংলা রিপোর্ট :: দেশজুড়ে নেয়া কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার হরতাল পালন করছে জামাত-বিএনপি। হরতালের মধ্যে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে থেকে বিএনপির ৪ নারী সাংসদকে আটক করেছে পুলিশ। এদিকে, সংখ্যায় কম হলেও ভোর থেকেই রাজধানীর সড়কগুলোতে রিকশা ও সিএনজিসহ বিভিন্ন ধরনের যান চলাচল করছে।

রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে পুলিশের পাশাপাশি রয়েছে র‌্যাবের কড়া নজরদারি। যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ও আশপাশের এলাকায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাংসদ সৈয়দা আসিফা আশরাফি পাপিয়া, রেহেনা আক্তার রানু, রাশেদা বেগম হীরা, শাম্মী আক্তার বিএনপি কার্যালয়ের ঢোকার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় চার বিএনপি নেত্রী রাস্তায় বসে পড়ে স্লোগান দিতে থাকেন।

পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এক পর্যায়ে তাদেরকে সেখান থেকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে পল্টন থানার দিকে নিয়ে যায় পুলিশ।

রাজারবাগ পুলিশ লাইনের সামনে ছাত্রদল মিছিল বের করলে সেখান থেকে ৫ জনকে আটক করে পুলিশ।

এছাড়া শনিরআখড়াসহ কয়েকটি এলাকায় বিচ্ছিন্নভাবে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। মিরপুর এলাকায়ও হরতাল বিরোধী মিছিল হয়েছে।

এদিকে, সরকারের সমালোচনা করে হরতাল সফল হচ্ছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি নেতারা। তাদের আভিযোগ, জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে র‌্যাব-পুলিশকে লেলিয়ে দিয়ে সরকার বিরোধীদলকে নিশ্চিহ্ন করার চেষ্টা করছে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহম্মেদ বলেন, ‘এই সরকার একেবারেই গণধিক্কৃত, এই সরকার জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে বিভিন্ন খড়কুটা আঁকড়ানোর চেষ্টা করছেন। লেলিয়ে দেয়া পুলিশ-র‌্যাবকে দিয়ে বিরোধীদলকে নিশ্চিহ্ন করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। যদি জনসমর্থন থাকতো, তাদের যদি জনগণের প্রত্যক্ষ আশীর্বাদ থাকতো, তাহলে এটা তারা করতেন না।’

হরতালে নিরাপত্ত্বা ব্যবস্থা সম্পর্কে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি এসএম মেহেদী হাসান বলেন, ‘সারা ঢাকা শহরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্পর্শকাতর জায়গা সমূহে পর্যাপ্ত সংখ্যক নিরাপত্ত্বা কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। ফৌজদারী আইন লঙ্ঘনকারী যেকোনো কার্যক্রমেই আমরা আইন প্রয়োগ করব।’

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »