যাত্রীর গুহ্যদ্বারে এক কেজি সোনার বার

ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গতকাল মঙ্গলবার রাতে এক কেজি সোনাসহ ফজলুল হক নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল থেকে তাঁকে আটক করেন ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেনটিভ টিমের সদস্যরা।

ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেনটিভ টিমের প্রধান ও সহকারী কমিশনার এইচ এম আহসানুল কবির বলেন, গতকাল রাত নয়টার দিকে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট ঢাকায় আসে। ওই ফ্লাইটের যাত্রী ছিলেন ফজলুল হক। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই যাত্রীকে গ্রিন চ্যানেল এলাকায় আটকে চ্যালেঞ্জ করা হয়। তখন তিনি সঙ্গে সোনা রাখার বিষয়টি অস্বীকার করেন। পরবর্তী সময়ে এক্স-রের মাধ্যমে তাঁর গুহ্যদ্বারে সোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

আহসানুল কবিরের ভাষ্য, বিমানবন্দরের শৌচাগারে নেওয়া হলে ফজলুল হকের কাছ থেকে ১০টি সোনার বার পাওয়া যায়। জিজ্ঞাসাবাদে ওই যাত্রী বলেন, তিনি পেশায় এয়ার কন্ডিশনের কারিগর। ফ্লাইটটি অবতরণের আধা ঘণ্টা আগে তিনি উড়োজাহাজের টয়লেটে গিয়ে সোনার বারগুলো গুহ্যদ্বারে ঢোকান।

উদ্ধার করা সোনার মূল্য ৫০ লাখ টাকা বলে জানিয়েছে ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেনটিভ টিম।