ডিএসইতে লেনদেন ৮০০ কোটি

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (০১ ডিসেম্বর) সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে।

দিনভর সূচকের ওঠানামা শেষে এদিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ৮০৩ কোটি টাকা। দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)  লেনদেন হয়েছে ৫৩ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

অন্যদিকে ডিএসইতে সূচক বেড়েছে ২২ পয়েন্ট এবং সিএসইতে বেড়েছে ৩৫ পয়েন্ট। পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম ও বাজার মূলধন।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে মোট ২৪ কোটি ৮৭ লাখ ১৮ হাজার ৫০৭টি সিকিউরিটিজের হাত বদল হয়েছে। টাকার অংকে এর পরিমাণ ৮০৩ কোটি ৪৫ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৬৩০ কোটি ৫৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা। তার আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৮০৮ কোটি ৬ লাখ ৯৩ হাজার টাকা।

এদিন তিন সূচকে পথচলা ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের চেয়ে ২১.৭৮ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৮২৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি ডিএসইএস শরিয়াহ্ সূচক ৮ দশমিক ৯১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১৪৯ পয়েন্টে এবং ডিএস-৩০ সূচক ১২ দশমিক ৩৬ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৭৮৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩২৩টি সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪৯টির, কমেছে ১২৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টি কোম্পানির শেয়ার।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৩৫ দশমিক ৫১ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ২৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিন সিএসইতে ৫৩ কোটি ৫৯ লাখ ১ হাজার ৮৯১ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৩৯ কোটি ৪৯ হাজার ২৮ হাজার টাকা।

লেনদেন হওয়া ২৫৪টি সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ১২৪টির, কমেছে ৯১টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টি কোম্পানির শেয়ার।