বার্তাবাংলা ডেস্ক »

মালয়েশিয়ার সমুদ্রতীরের পোর্ট ডিকসনের ঝিমায় অভিযান চালিয়ে ৭৬৭ বাংলাদেশিসহ ৯৩৬ জনকে আটক করেছে দেশটি ইমিগ্রেশন পুলিশ। পুলিশের দাবি, এরা অবৈধ অভিবাসী। গতকাল রোববার দিনভর এ অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ।

আটকদের মধ্যে ৭৬৭ বাংলাদেশি ছাড়া আছে পাকিস্তানের ৮০ জন, ভারতের ৫০, ইন্দোনেশিয়ার ২২, শ্রীলঙ্কার ১৩, মিয়ানমারের তিন এবং নেপালের একজন।

অভিযান শেষ হয় রাত ১০টায়। থেমে থেমে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে অবৈধ অভিবাসীদের আটক করে বলে জানিয়েছেন নেগারি সিম্বিলানের ইমিগ্রেশন পরিচালক হাপযান হোসেনি।

হাপযান হোসেনি আরো বলেন, ‘আটক হওয়া এসব অবৈধ অভিবাসীর কাছে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করার বৈধ কাগজপত্র ছিল না। তাঁরা সবাই নির্ধারিত সময়ের পরও মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছিলেন। মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে বসবাসরত বিদেশি শ্রমিকদের বৈধ হওয়ার জন্য রি-হায়ারিং কর্মসূচি চালু করা হয়েছিল। কিন্তু খুব কম সংখক অবৈধ অভিবাসী এই কর্মসূচির আওতায় এসেছেন। এর ধারাবাহিকতায় মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের পক্ষ থেকে অবৈধ অভিবাসীদের ধরতে আবার বিশেষ অভিযান শুরু করে।’

এদিকে সাঁড়াশি অভিযান শুরু হওয়ার আগেই পালিয়ে বেড়াচ্ছেন অবৈধ অভিবাসীরা। গত কয়েক বছরের মধ্যে মালয়েশিয়ায় এটিই সবচেয়ে বড় অবৈধ অভিবাসীবিরোধী অভিযান হতে পারে বলে ধারণা করছেন অনেকে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »