টাকা ছিনতাইয়ের মামলায় দুই পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে করা মামলায় পুলিশের দুই সদস্যের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। তাঁরা হলেন ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের (উত্তর) গুলশান জোনের কনস্টেবল লতিফুজ্জামান ও রাজেকুল খন্দকার। শনিবার ঢাকার মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী এ আদেশ দেন। ঢাকা মহানগর পুলিশের উপপরিদর্শক (আদালতে কর্মরত) মাহমুদুর রহমান এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, এই মামলার দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ সাত দিন করে রিমান্ডের আবেদন করে। ছিনতাইয়ের ঘটনায় আর কারা কারা জড়িত, তা খুঁজে বের করার জন্য এ আসামিদের রিমান্ড জরুরি বলে রিমান্ড আবেদনে বলা হয়। শুনানি শেষে আদালত আসামিদের দুই দিনের করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
গতকাল শুক্রবার ভোরে রাজধানীর সার্ক ফোয়ারা মোড়ের কাছে টাকা ছিনতাইকালে আটক হন লতিফুজ্জামান। পরে রাজেকুল খন্দকারকে কর্মস্থল থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুবকর সিদ্দিক বলেন, ছিনতাইয়ের সময় লতিফুজ্জামানকে আটক করে ভুক্তভোগী ব্যক্তিরা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। পরে দুপুরের দিকে রাজেকুলকে ট্রাফিক পুলিশের উত্তরার কার্যালয় থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। লতিফ জিজ্ঞাসাবাদে ছিনতাইয়ের কথা স্বীকার করলেও রাজেকুল স্বীকার করেননি।
ঘটনার সময় ব্যবহার করা মোটরসাইকেলটি আটক করা হয়েছে। টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ছিনতাইয়ের ঘটনায় ডিম ব্যবসায়ী আবদুল বাসের মামলা করেছেন বলে জানান ওসি।