প্রতিদিন তিন কাপ কফি!

কাজের ব্যস্ততায় একটু কফি…সন্ধ্যায় আড্ডায় এক মগ, শীতের রাতে প্রিয়জনের সঙ্গে ভাগাভাগি করে এক মগ গরম কফি… জীবনের মানেই যেন পাল্টে দেয়।

সাধারণত সতেজতা ফিরিয়ে আনার জন্যই কফি পান করা হয়ে থাকে। আবার অনেকে শুধু স্বাদের জন্যও গ্রহণ করেন কফি। তবে যে যে প্রয়োজনেই কফি পান করেন না কেনো, তাতে দুধ-চিনি যে সবসময় থাকে তা কিন্তু নয়। যদিও অধিকাংশ মানুষ চিনি দিয়েই কফি খান, চিনির প্রতি খারাপ ধারণা আছে এমন লোকের সংখ্যাও কিন্তু কম নয়।

তাহলে কোনটা বেশি উপকারী? সম্প্রতি স্পেনের বার্সেলোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী এ বিষয়ে তাদেন আবিষ্কার প্রকাশ করেছেন।

বিজ্ঞানীরা গবেষণায় পেয়েছেন ক্যাফেইন এবং চিনি পৃথক খাওয়ার চেয়ে একসাথে খেলে মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়ে। তারা মনে করেন, ক্যাফেইন ও চিনি কাজে মনোযোগ এবং স্মৃতিশক্তি বাড়ায়।

চল্লিশজন স্বেচ্ছাসেবক এ গবেষণা প্রক্রিয়ায় অংশ নেন। তাদেরকে চিনিসহ কফি ও চিনিছাড়া কফি, শুধু চিনি, শুধু কফি, এবং পানির সাথে চিনি খাওয়ার পর তাদের মস্তিস্ক স্ক্যান করে গবেষকরা এই তথ্য দেন।

এই গবেষণার সমন্বয়ক হোসেপ সেররা গ্রাবুলোসা বলেন, ‘এই দুটি উপাদান একত্রে মস্তিষ্কে এমনভাবে কাজ করে যার ফলে একজন মানুষের মনোযোগের স্থায়িত্ব এবং স্মৃতিশক্তি বাড়ে। আর এ কথা সবাই জানেন যে, ক্যাফেইন কাজের উদ্দীপনা বাড়ায়। এই উপাদান দুটি ঝিমুনি ভাব অথবা অবসাদের সাথে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করতে পারে।’

এদের পূর্ববর্তী গবেষণায় দেখা গেছে, একজন ব্যক্তি প্রতিদিন তিন কাপ করে কফি পান করলে অ্যালজেইমার জাতীয় রোগের ঝুঁকি কমে। এটি মস্তিস্কের অন্যান্য রোগের আক্রমণও প্রতিহত করে।