খারাপের তালিকায় শীর্ষ দশে শাহজালাল বিমানবন্দর

এশিয়ার খারাপ বিমানবন্দরের তালিকায় শীর্ষ দশে নিজের অবস্থান ধরে রেখেছে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। টানা তৃতীয়বারের মতো নবম স্থানে আছে দেশের প্রধান এই বিমানবন্দর।

বিশ্বব্যাপী বিমানের যাত্রীদের ওপর চালানো এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। জরিপ পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান স্লিপিংএয়ারপোর্টস ডটকম এ তথ্য দিয়েছে। এ ওয়েবসাইটটি প্রতিবছর যাত্রীদের মতামতের ওপর ভিত্তি করে বিশ্বের বিমানবন্দরগুলোর ভালো-মন্দের তালিকা প্রকাশ করে।

২০১৪ ও ২০১৫ সালেও একই জরিপে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর নবম স্থানে ছিল। যাত্রীরাই জানালেন, দেশটির প্রধান এই বিমানবন্দরে এ বছর কার্যকর কোনো উন্নয়ন হয়নি।

বিশ্বে খারাপ বিমানবন্দরের তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে সৌদি আরবের জেদ্দা কিং আবদুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। এ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে দক্ষিণ সুদানের জুবা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে নাইজেরিয়ার পোর্ট হারকোর্ট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর।

চলতি বছরের জরিপে বলা হয়, ‘বিমানে ঢাকায় যাওয়া-আসার সময় বাড়তি অনেক সময় ব্যয় হয়।’ সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের প্রধান বিমানে ভ্রমণকারীদের মতামতের ওপর ভিত্তি করে এই তথ্য দেওয়া হয়।

জরিপে বলা হয়, ‘হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন লাইন অত্যন্ত ধীরগতিতে চলে। লাগেজের জন্য অপেক্ষা করাটা একদমই বাজে। টারমিনালে দেখা যায় যাত্রীদের লম্বা লাইন।’

এশিয়ার সবচেয়ে খারাপ বিমানবন্দরের শীর্ষে আছে উজবেকিস্তানের তাসখন্দ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। দ্বিতীয় স্থানে আছে নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও তৃতীয় স্থানে আছে পাকিস্তানের পেশোয়ার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর।

চলতি বছর সিঙ্গাপুরের চ্যাংগি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিশ্বে সেরা বিমানবন্দর হিসেবে স্থান পেয়েছে। কোরিয়ার সিউল ইঞ্চিয়ন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দ্বিতীয় স্থানে এবং জাপানে টোকিও হেনেডা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এই তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে আছে।