নতুন উচ্চতায় নেইমার

দুর্দান্ত গতিতে ছুটছেন নেইমার। ক্লাব ও জাতীয় দলের জার্সিতে ক্যারিয়ারের সেরা সময়ই পার করছেন ২৪ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। সবশেষ ঘরের মাঠে তার অসাধারণ নৈপুণ্যে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনাকে ৩-০ গোলে হারের লজ্জায় ডুবিয়েছে ব্রাজিল।

এ ম্যাচ দিয়ে ব্রাজিলের হয়ে নিজেকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেলেন নেইমার। ৫০তম গোলের মাইলফলক ছুঁয়েছেন বার্সেলোনা তারকা। আর ছয়বার স্কোরশিটে নাম লেখালেই ছাড়িয়ে যাবেন স্বদেশী কিংবদন্তি রোমারিওকে। সেলেকাওদের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলস্কোরার হতে আর ২৮ ধাপ দূরে রিও অলিম্পিক হিরো। ৭৭ গোল নিয়ে সবার উপরে তিনবারের বিশ্বকাপ জয়ী পেলে।

বেলো হরিজন্তে স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে (১১ নভেম্বর) অসহায় আত্মসমর্পণই করে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। নেইমারের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের বিপরীতে অনেকটাই ম্লান ছিলেন তার ক্লাব সতীর্থ পাঁচবারের ফিফা বর্ষসেরা মেসি। টানা পাঁচ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানটাও আরো সুসংহত করলো নেইমারের ব্রাজিল (২৪ পয়েন্ট)। অন্যদিকে, টানা চার ম্যাচে জয়হীন আর্জেন্টিনা রীতিমতো ধুঁকছে। ১১ ম্যাচ শেষে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে অবস্থান ষষ্ঠ।

একটি গোল করার পাশাপাশি সতীর্থকে দিয়ে আরেকটি করিয়েছেন নেইমার। খেলা শুরুর ২৫ মিনিটে তার পাস থেকেই গোল উৎসবের সূচনা করেন লিভারপুল তারকা ফিলিপ্পে কুতিনহো। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে মাইলফলক ছোঁয়া গোলের দেখা পান পেলের উত্তরসূরি। আলবিসেলেস্তেদের জালে শেষবার (৫৮ মি.) বল পাঠান পাউলিনহো।

নেইমার কতটা ছন্দে আছেন তা সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে। নিজের শেষ চারটি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে দলের ১২টি গোলের মধ্যে আটটিই এসেছে তার হাত ধরে। তিনটি গোলের পাশাপাশি পাঁচটি অ্যাসিস্ট করেছেন ‘আগামীর বিশ্বসেরা’।