আলেপ্পোয় রাশিয়া ‘বর্বরতা’ চালাচ্ছে : যুক্তরাষ্ট্র

সিরিয়ার আলেপ্পো শহরে রাশিয়ার বোমা হামলাকে ‘বর্বরতা’ বলে অভিহিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

গতকাল রোববার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠকে রাশিয়াকে এভাবেই যুক্তরাষ্ট্র তিরস্কার করে। বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

আলেপ্পোয় রুশ ও সিরীয় বাহিনীর নতুন করে হামলার পরিপ্রেক্ষিতে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের অনুরোধে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠকে বসে।

বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত সামান্থা পাওয়ার বলেন, সিরিয়ায় অভিযান নিয়ে রাশিয়া নিরাপত্তা পরিষদকে নির্জলা মিথ্যা তথ্য দিয়েছে।

সামান্থা পাওয়ার বলেন, শান্তির পরিবর্তে রাশিয়া ও সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ যুদ্ধ করছে। তারা ত্রাণবাহী গাড়িবহরে, হাসপাতালে ও জীবন বাঁচাতে সাড়া দিতে কাজ করে যাওয়া ব্যক্তিদের ওপর বোমা ফেলছে।

আলেপ্পোয় রাশিয়া যা করছে, তাকে ‘বর্বরতা’ আখ্যা দেন সামান্থা পাওয়ার। রাশিয়াকে থামানোর জন্য নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

নিরাপত্তা পরিষদে রুশ রাষ্ট্রদূত ভিতালি শুরকিন বলেন, সিরিয়ায় শান্তি প্রতিষ্ঠা এখন প্রায় অসম্ভব একটি কাজ।

রুশ রাষ্ট্রদূতের অভিযোগ, বিরোধী সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো যুদ্ধবিরতি ধূলিসাৎ করেছে।

সিরিয়ায় পাঁচ বছর ধরে চলা রক্তক্ষয়ী সংঘাতে উত্তরাঞ্চলীয় শহর আলেপ্পো একটি গুরুত্বপূর্ণ যুদ্ধক্ষেত্র হয়ে উঠেছে।

আলেপ্পোর দখল নিয়ে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহীদের মধ্যে তীব্র লড়াই শুরু হয়েছে। সেখানে মুহুর্মুহু বিমান হামলা হচ্ছে। বিমান হামলায় বাংকার ধ্বংসকারী এবং আগুন সৃষ্টিকারী গোলা ব্যবহার করা হচ্ছে। এ নিয়ে শঙ্কিত জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন।

রাশিয়ার ভাষ্য, আলেপ্পো থেকে সন্ত্রাসীদের উৎখাত করার চেষ্টা করছে রুশ ও সিরীয় বাহিনী।