দীপন হত্যা ও টুটুল হত্যাচেষ্টার অন্যতম ‘হোতা’ গ্রেপ্তার

জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা এবং শুদ্ধস্বরের স্বত্বাধিকারী আহমেদুর রশীদ চৌধুরী টুটুল হত্যাচেষ্টার অন্যতম হোতা আবদুস সবুরকে গ্রেপ্তারের দাবি করেছে পুলিশ।

আজ রোববার সকালে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো মোবাইল ফোনের খুদে বার্তায় এই দাবি করা হয়।

খুদে বার্তায় জানানো হয়, মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি-দক্ষিণ) গতকাল শনিবার রাতে টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশন থেকে সবুরকে গ্রেপ্তার করে।

ডিএমপির ভাষ্য, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তি রাজু, সাদ, সামাদ, সাজু নামেও পরিচিত।

ডিএমপির উপকমিশনার (জনসংযোগ) মাসুদুর রহমানের ভাষ্য, দীপন হত্যা ও টুটুল হত্যাচেষ্টার অন্যতম হোতা ছিলেন সবুর।

এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানাতে সাংবাদিকদের ব্রিফ করার কথা ডিএমপির।

গত বছর ৩১ অক্টোবর রাজধানীর আজিজ সুপার মার্কেটে জাগৃতি প্রকাশনীর অফিসে দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। একই দিন শুদ্ধস্বরের টুটুলসহ তিনজনের ওপর হামলা চালায় জঙ্গিরা।

দীপন হত্যার মূল আসামিকে গ্রেপ্তারের দাবি করেছে পুলিশ। তাঁর নাম মইনুল হাসান শামীম। তাঁকে গত ২৩ আগস্ট সন্ধ্যায় টঙ্গীর চেরাগ আলী মার্কেটের সামনে থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে দীপনকে হত্যার কথা শামীম স্বীকার করেছেন বলে পুলিশের ভাষ্য।

টুটুলকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় সুমন পাটোয়ারি নামের সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে গত ১৫ জুন বিমানবন্দর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি।