মিরপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জঙ্গি মেজর মুরাদ নিহত

রাজধানীর মিরপুরে রূপনগর শিয়ালবাড়ী এলাকায় বন্দুকযুদ্ধে আজ শুক্রবার রাতে এক জঙ্গি নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাঁর নাম মুরাদ ওরফে মেজর মুরাদ ওরফে জাহাঙ্গীর।

এ ঘটনায় আহত পুলিশের দুই সদস্যকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গুলশানে জঙ্গি হামলা ও শোলাকিয়ায় হামলা চালানো জঙ্গিদের প্রশিক্ষক ছিলেন মেজর (চাকরিচ্যুত) মুরাদ। তিনি ‘নব্য জেএমবি’র নেতা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ও ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের অতিরিক্ত উপকমিশনার ছানোয়ার হোসেন বলেন, রূপনগর শিয়ালবাড়ী এলাকার একটি বাড়িতে বন্দুকযুদ্ধে এক জঙ্গি নিহত হয়েছেন। তার নাম মুরাদ ওরফে মেজর মুরাদ ওরফে জাহাঙ্গীর।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলেন, কয়েক দিন আগে ওই বাড়িতে মুরাদের অবস্থান শনাক্ত করা হয়। গত ২৮ আগস্ট ওই বাড়িতে গেলে গোয়েন্দা পুলিশ দেখতে পায় যে, বাড়িটি তালা মারা। তবে ভেতরে জিনিসপত্র রয়েছে। এরপর গোয়েন্দারা কোনো কিছুতে হাত না দিয়ে বাড়িওয়ালাকে বলে আসেন ওই ব্যক্তি জিনিসপত্র নিতে আসলে যেন পুলিশ ও ডিবিকে জানানো হয়। ওই জঙ্গি ফিরে এলে বাড়িওয়ালা তাৎক্ষণিক রূপনগর থানা-পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে ওই বাড়িতে গেলে পু​লিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় মুরাদ ওরফে জাহাঙ্গীর। এতে রূপনগর থানার দুই পরিদর্শকসহ কয়েকজন আহত হন। আহত দুই পরিদর্শককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পু​লিশ জানায়, গত ২৭ অগাস্ট অভিযানে নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ার যে বাড়িতে তামিম চৌধুরী নিহত হন ওই বাড়িটি ভাড়া নিয়েছিলেন মেজর মুরাদ ওরফে জাহাঙ্গীর।