সিরিয়ার কারাগারে নির্যাতনে ১৮ হাজার বন্দির মৃত্যু : অ্যামনেস্টি

সিরিয়ায় সরকারি কারাগারে বন্দি অবস্থায় ২০১১ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রায় ১৮ হাজার ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি।
বিবিসি বলছে, বন্দিদের মারধর ও ধর্ষণের অভিযোগও পাওয়া গেছে বলে অ্যামনেস্টি দাবি করেছে।

অ্যামনেস্টি জানিয়েছে, তাদের সংগ্রহ করা তথ্যের মধ্যে নির্যাতনের শিকার হয়ে বেঁচে যাওয়া ৬৫ জনের সাক্ষাৎকারও রয়েছে। তারা বন্দিশালায় নিপীড়নের বর্ণনা দিয়েছেন।

কারাবন্দিদের উপর নির্যাতন বন্ধে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে এই আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাটি।

তবে সিরিয়ার সরকার বরাবর এইসব অভিযোগ্ প্রত্যাখ্যান করে আসছে।

“ইট ব্রেকস দ্য হিউম্যান”: টর্চার, ডিজিজ অ্যান্ড ডেথ ইন সিরিয়া’স প্রিজনস- শিরোনামে অ্যামনেস্টি বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তাতে সিরীয় সরকারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগগুলো তোলা হয়।

অ্যামনেস্টির হিসাব অনুযায়ী সিরিয়াজুড়ে সরকারি কারাগারগুলোতে ২০১১ সালের মার্চ থেকে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ১৭,৭২৩ জনেরও বেশি ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

এই হিসাব অনুযায়ী কারাগারগুলোতে প্রতিদিন গড়ে ১০ বন্দির মৃত্যু হয়েছে। যা প্রতি মাসের হিসাবে দাঁড়ায় ৩০০ জন বা তারও বেশি।

২০১১ সালের মার্চে সিরিয়ায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের সূচনা হয়।

সিরীয় সরকারের বিরুদ্ধে এইসব অভিযোগ আলোচনার জন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে এই আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাটি। বিশেষ করে সিরিয়া সমস্যা নিয়ে শান্তি আলোচনায় অংশগ্রহণকারী প্রভাবশালী দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার প্রতি এই আবেদন জানিয়েছে অ্যামনেস্টি।