নোয়াখালীতে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে কেন্দ্রীয় নেতাসহ শতাধিক আহত » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

43859_leadবার্তাবাংলা ডেস্ক ::নোয়াখালিতে বিএনপির সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। বিকাল ৫টার দিকে জেলা জামে মসজিদ রোড এলাকায় মাইজদী জিলা স্কুল প্রাঙ্গনে এ ঘটনা ঘটে। এতে বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ শাহজাহান ও পৌর মেয়র ও পাঁচ পুলিশসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ২৮জন। দেশব্যাপী হত্যা, খুন, সন্ত্রাস, দ্রব্যমূল্যোর উর্ধগতি, আমার দেশ সম্পাদককে মামলা ও হয়রানির প্রতিবাদ এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে জেলা বিএনপি বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ বাধা দিলে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা শুরু হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ মিছিল লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। প্রায় ২শতাধিক রাবার বুলেট, টিয়ার সেল নিক্ষেপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ সময় সরকার দলীয় সশস্ত্র কর্মীরাও বিএনপির মিছিলে হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতারা। এ ঘটনায় বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মো. শাহজাহান, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী পৌর মেয়র হারুনুর রশিদ আজাদ, জেলা যুবদল সভাপতি মাহবুব আলমগীর আলো, শহর বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আবু নাছের, যুবদল নেতা ভিপি জসিম, ফিরোজ, আবু হানিফ, ছাত্রদল নেতা সাবের আহমদ, মিজান, রাসেলসহ শতাধিক আহত হয়েছেন। আহতদের নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। বিএনপির পাল্টা হামলায় পাঁচ পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পরে বিক্ষুব্ধ বিএনপি কর্মীরা ঢাকা-সোনাপুর মহাসড়ক প্রায় দুই ঘন্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। তারা আটটি গাড়ি ভাংচুর করে। এ সময় পুলিশ ও আওয়ামী লীগ কর্মীদের সঙ্গে বিএনপির দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এ সময় জেলা শহর মাইজদী রণক্ষেত্রে পরিনত হয়। ব্যাবসায়ী পথচারীসহ সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব মো. শাহজাহান জানান, বিএনপির শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশ ও সরকারী দলের ক্যাডাররা বাধা দিয়ে নির্বিচারে গুলি ও টিয়ার শেল মেরে শতাধিক নেতাকমীকে আহত করেছে।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »