ইসলাম প্রতিষ্ঠা নয়, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করাই তাদের উদ্দেশ্য : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের মধ্যে জঙ্গিবাদ নামের ব্যাধি যাতে ঢুকতে না পারে, এ বিষয়ে অভিভাবকসহ কলেজ অধ্যক্ষদের আরও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, স্কুল, মাদ্রাসায় জঙ্গিবাদ ঢুকবে আর আমরা হাল ছেড়ে দিয়ে বসে থাকব, তা হয় না। সমগ্র জাতি একসঙ্গে মিলে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেব।’

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা সব কলেজ অধ্যক্ষদের সঙ্গে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শান্তি সমাবেশে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের মুষ্টিমেয় কিছু শিক্ষার্থী জঙ্গিবাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। ইতিমধ্যে আমরা খোঁজখবর নেওয়া শুরু করেছি। কারা এসব কর্মকাণ্ডে জড়িত, তাদের খুঁজে বের করে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।’ শিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারাও সচেতন থাকুন, আপনাদের শিক্ষার্থীরা যেন এই ব্যাধিতে না জড়ায়।’

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ধন্যবাদ জানিয়ে নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘আমাদের দেশের পুলিশসহ অন্য সব বাহিনী বিশাল এক সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে, এর তুলনা হয় না। তারা দেশের ভয়ানক অবস্থার সময় জীবন বিলিয়ে দিয়েছে। গুলশানে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা থেকে সাধারণ মানুষকে রক্ষা করতে দুজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। আবার শোলাকিয়াতেও দুজন পুলিশ তাদের জীবন দিয়ে এক বিশাল নজির স্থাপন করে গিয়েছেন।’

জঙ্গিদের উদ্দেশ্য সম্পর্কে নাহিদ বলেন, ইসলাম প্রতিষ্ঠা তাদের উদ্দেশ্য নয়। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করাই তাদের মূল উদ্দেশ্য। তারা যদি ইসলামের পথেই থাকত, তাহলে গুলশানের হামলার দিন তারাবির নামাজের সময় নামাজ না পড়ে তারা মানুষ হত্যায় লিপ্ত থাকত না।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যায়ের উপাচার্য হারুন-অর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ ও শিক্ষকমণ্ডলী।