একাকীত্ব বাড়ায় হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি

অনেকেই আছেন যারা একা থাকতে পছন্দ করেন। তাদের জন্য দুঃসংবাদ হলো একা থাকার এই অভ্যাস শারীরিকসহ মানসিক সবদিকে খারাপ প্রভাব ফেলে৷

একাকী থাকা বা একাকীত্বকে সঙ্গী করবেন না। সমীক্ষা থেকে জানা গেছে, যারা একা জীবন কাটান বা একা থাকতে পছন্দ করেন তাদের হার্ট অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

সংসারী মানুষদের মধ্যেও এই সম্ভাবনা থাকে, কিন্তু একা যারা থাকেন তাদের এই সমস্যার সন্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি হয়। ৬০ বছর বয়সী মহিলা এবং ৫০ বছর বয়সী পুরুষদের মধ্যে এনজাইনার প্রবণতা খুব বেড়ে যায়। একা থাকার ফলে তাদের খাওয়া-দাওয়ার ব্যাপারে অসতর্কতা ভীষণ বেশি দেখা যায়। এদের খাওয়া-দাওয়ার নির্দিষ্ট কোনো সময় থাকে না। খাদ্য গ্রহণের ক্ষেত্রে তাদের এই অবহেলা সমস্যার সৃষ্টি করে।

শুধু খাওয়া-দাওয়ার ক্ষেত্রে অনিয়ম নয়, তাদের একাকীত্ব ধূমপানের প্রবণতা বাড়ায়। এর ফলেও তাদের হার্ট অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। তাদের দেখাশোনা করার কেউ থাকে না বা তাদের নিজেদের প্রতি এই উদাসীনতা সমস্যা বৃদ্ধি করে। এই সমস্যা এমন পর্যায়ে যায় যা সহজে সেরে ওঠে না।

এই সমস্যা থেকে নিজেকে দূরে রাখতে একাকীত্ব থেকে নিজেকে দূরে রাখুন৷ একা থাকার অভ্যাস দূর করুন আর সময় কাটানোর জন্য মনের মত সঙ্গী পছন্দ করে নিন। সঙ্গী শুধুমাত্র আপনার একাকীত্ব কাটাবে তা নয় আপনার সঠিক দেখাশোনাও সে করবে যার ফলে সবদিক থেকেই আপনার সমস্যার সমাধান হতে পারে। একা না থেকে সঙ্গীর সঙ্গ উপভোগ করে জীবন আনন্দময় করে তুলুন।