বার্তাবাংলা ডেস্ক »

43206_khaledaবার্তাবাংলা ডেস্ক ::শাহবাগের প্রতিবাদী তরুণ সমাজকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিরোধী নেতা খালেদা জিয়া। আজ এক বিবৃতিতে তিনি এ আহ্বান জানান। বিবৃতিতে তিনি বলেন, শাহবাগের সমাবেশে তরুন-তরুনীদের কাছে জনগণের প্রত্যাশা অপরিসীম। তরুন সমাজকে দলীয়করণের অপকৌশল সম্পর্কে সজাগ হতে হবে। জনগণের মধ্যে স্পষ্ট ধারণা সৃষ্টি করতে হবে যে, শাহবাগের এই আন্দোলন দলমত নির্বিশেষে তরুন সমাজের আন্দোলন। শাহবাগ চত্ত্বরে সরকারের ভয়াবহ অপকীর্তিগুলো যুক্ত করে একটা সার্বজনীন আন্দোলনের সম্ভাবনাকে ব্যর্থ করতে ক্ষমতাসীনমহলের সুদুরপ্রসারী চক্রান্ত সম্পর্কেও তরুণ-তরুণীদের সচেতন হতে হবে। তাদের মঞ্চে ক্ষমতাসীন জোটের কর্মীদের তৎপরতা থাকলে মানুষকে সন্দিহান করে তুলবে। খালেদা জিয়া বলেন, চার বছরে মহাজোট সরকারের অপকর্মের তীব্রতা এত বেশী যে, জনগণের ক্ষোভ আর ছাইচাপা থাকছে না; আগ্নেয়গিরির অগ্যœুৎপাতের মতো উদগীরিত হচ্ছে। তাই জনগণের ক্রোধকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য সরকার নানা চক্রান্তজাল বুনে যাচ্ছে। তবে চক্রান্তের ঘূর্ণাবর্তে জনগণকে কখনোই বিভ্রান্ত করা যায় না। বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, সরকারের গণবিরোধী নীতি ও অনাচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার দেশের লেখক, কলামিষ্ট, রাজনৈতিক বিশ্লে¬ষক ও মুক্তবুদ্ধির বুদ্ধিজীবিদের ওপর আক্রমন ও হুমকি গত চার বছরে বিপজ্জনক রূপ ধারণ করেছে। স্বৈরতন্ত্রের এই চরম নগ্নরূপের ফলশ্র“তিতে দেশে বিরাজমান রয়েছে দুঃসহ অশান্তি ও হানাহানির পরিবেশ। তিনি বলেন, বর্তমান শাসকগোষ্ঠী ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকে বিরোধী মত, সাংবাদিক ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতা এবং মানুষের মৌলিক অধিকারকে দলন করে আসছে। জনগণকে মিথ্যা প্রতিশ্র“তি দিয়ে ক্ষমতাসীন হয়ে শাসক দল সরকারি ক্ষমতাকে ব্যবহার করে সন্ত্রাস, দখল, লুটপাটসহ সর্বগ্রাসী দুর্নীতিতে নিজেদের আকণ্ঠ নিমজ্জিত রেখেছে। অপশাসন টিকিয়ে রাখতে তারা বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য গুম, অপহরণ ও গুপ্তহত্যার মত নৃশংস পথ বেছে নিয়েছে। বিরোধী দলের সংবিধান প্রদত্ত অধিকারগুলো দুঃশাসনের নিষ্ঠুর র্যাঁতাকলে পিষ্ট করা হচ্ছে। শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চ থেকে বুদ্ধিজীবীদের প্রতি হুমকিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে খালেদা জিয়া বলেন, ১৬ ফেব্র“য়ারী  সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে শাহবাগের প্রতিবাদ থেকেই ‘আমার দেশ’ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. পিয়াস করিম ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আসিফ নজরুলের বিরুদ্ধে হুমকি দেয়া হয়েছে। ঐ মঞ্চ থেকে যদি আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, ড. পিয়াস করিম, ড. আসিফ নজরুলের মতো দেশ ও দশের প্রতি সহমর্মী, সত্যনিষ্ঠ ও দৃঢ়চেতা সাংবাদিক ও শিক্ষাবিদদের হুমকি দেয়া হয় তাহলে শাহবাগ আন্দোলনের স্বাতন্ত্র্যবৈশিষ্ট্য ক্ষুন্ন হবে বলে জনগণ মনে করে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »