বার্তাবাংলা ডেস্ক »

2012-05-27__Narayanganjবার্তাবাংলা ডেস্ক ::যুদ্ধাপরাধী ও মানবতা বিরোধীদের ফাঁসির দাবিতে শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম ব্লগার আহম্মেদ রাজীব হায়দার শোভনকে হত্যার ঘটনায় তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া গোল চত্বরকে ‘রাজীব চত্বর’ হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

রোববার বিকেলে চাষাঢ়ায় জামায়াত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ, রাজাকারদের ফাঁসির দাবি ও ব্লগার রাজীব হত্যার প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশের আগে নারায়ণগঞ্জের সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা শামীম ওসমান আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণা দিয়ে সেখানে সাইনবোর্ড গেঁথে দেন এবং ফলক উন্মোচন করেন।

এসময় শামীম ওসমান বলেন, “২০০০ সালে আমি নারায়ণগঞ্জে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চেয়ে ও নারায়ণগঞ্জের পবিত্র মাটিতে তাদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের মোড়ে সাইনবোর্ড গেঁথে দিয়েছিলাম। এ কারণে ওই এলাকার নাম হয়েছিল সাইনবোর্ড। তেমনিভাবে এখন চাষাঢ়াতে রাজীবের স্মরণে সাইনবোর্ড গেথে তার নামে রাজীব চত্বর ঘোষণা করলাম।”

শামীম ওসমান তার বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জে আবারো জামায়াতে ইসলামী ও তাদের সহযোগী সংগঠন ইসলামী ছাত্র শিবিরকে প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে মহাজোটের নেতা-কর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, “সোমবার হরতালে পুলিশ নয় নেতা-কর্মীদের মাঠে থাকতে হবে। যদি জামায়াত-শিবিরের বহিরাগত লোকজন এ শহরে তাণ্ডব চালায় তাহলে এ শহরে থাকা জামায়াত-শিবিরের বাড়িঘর হবে কবরস্থান। আমরা আর হাত গুটিয়ে বসে থেকে জামায়াতের অত্যাচার সইবো না। এখন সময় এসেছে অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবার।”

শামীম ওসমান আরও বলেন, “নারায়ণগঞ্জে জামায়াত ও শিবিরকে কারা পৃষ্ঠপোষকতা করে তা সবাই জানে। সুতরাং প্রশাসন ও সরকারের উচিত হবে তাদের ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া।

তিনি বলেন, “নারায়ণগঞ্জ থেকেই প্রথম বড় পরিসরে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবি তোলা হয়েছিল। ২০০০ সালে তোলারাম কলেজে শহীদ জননী জাহানারা ইমাম ভবন উদ্বোধনের সময়ে দেশের সুশীল সমাজ যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবি তুলেছিল। সেই নারায়ণগঞ্জ থেকেই এবার জামায়াত-শিবিরকে প্রতিহত করা হবে।”

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষকলীগের সভাপতি নাজিমউদ্দিন আহম্মেদ, জেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি চন্দন শীল, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি আনিসুর রহমান দিপু, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, জেলা যুবলীগ নেতা শাহ নিজাম প্রমুখ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »