৩৪ বছরের রেকর্ড ভাঙল ফ্রান্সের বন্যা

ফ্রান্সে নদীর পানি বেড়ে ৩৪ বছরের মধ্যে বেশি ভয়াবহ বন্যার সৃষ্টি করেছে। বন্যার কারণে কর্তৃপক্ষ রাস্তা, মেট্রো সিস্টেম ও দর্শনীয় স্থানগুলো বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে।
বিবিসির খবরে বলা হয়, লুভর ও ওরসে জাদুঘরকে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পানির পরিমাণ বেড়ে গেলে জাদুঘরের সামগ্রীসমূহ নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়।
ফ্রান্সের সেইন নদীর পানি এখন সাড়ে ৬ মিটার উচ্চতায় বয়ে চলছে। অতি বৃষ্টির জন্য কেন্দ্রীয় ইউরোপের ইউক্রেন থেকে ফ্রান্স পর্যন্ত ১৫ জন মারা গেছেন।
পানি প্রবাহের কারণে বেশ কয়েকটি সেতু বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। নদীতে নৌকা চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।
বন্যায় আক্রান্ত হয়েছে জার্মানির দক্ষিণাঞ্চল, রোমানিয়া, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ড আর পোল্যান্ড।
বন্যার কারণে কয়েক লাখ মানুষ তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছেন। ১৯৮২ সালের পর সেইন নদীর পানি এত উপর দিয়ে আর প্রবাহিত হয়নি।