জনগণ কাউকে ইসরায়েলের সঙ্গে আঁতাত করতে দেবে না

ফিলিস্তিনি দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স ইউসুফ এস রামাদান বলেছেন, বাংলাদেশের কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তি বা দল ইসরায়েলের কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তি, দল বা গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক গড়লে তা হবে সেই ব্যক্তি বা দলের জন্য রাজনৈতিক আত্মহত্যা।

‘ফিলিস্তিনের নাকবা দিবস’ উপলক্ষে শনিবার দূতাবাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিলিস্তিন দূত এস রামাদান এ কথা বলেন।
ফিলিস্তিনি দূত বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাঁর সঙ্গে দেখা করেছেন। মির্জা ফখরুল বলেছেন, মোসাদের সঙ্গে বিএনপির কোনো সম্পর্ক নেই। এস রামাদান বলেন, তিনি বিএনপিকে বলেছেন এ বিষয়ে আরও সতর্ক হওয়া উচিত। কারণ, এ ধরনের ঘটনা তাদের জন্য রাজনৈতিক আত্মহত্যা হতে পারে।
সাংবাদিকদের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স বলেন, বাংলাদেশের জনগণ ফিলিস্তিনের মানুষের সঙ্গে আছে। তারা কাউকে ইসরায়েলের সঙ্গে আঁতাত করতে দেবে না।
বাংলাদেশের সঙ্গে ইসরায়েলের কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। দেশটিকে রাষ্ট্র হিসেবেও স্বীকৃতি দেয় না বাংলাদেশ। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরী সম্প্রতি ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের এক এজেন্টের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বলে গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে। যদিও আসলাম চৌধুরী ইসরায়েলি এক ব্যক্তির সঙ্গে ভারতে ব্যবসায়িক সফরের সময় দেখা হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তবে কোনো বৈঠক হয়েছে এমন কথা অস্বীকার করেছেন তিনি।