বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সেই সময়টা কিছুতেই ভুলতে পারেন না শচীন টেন্ডুলকার। কোন সময়টা? ওই যে ২০০৭ সালের বিশ্বকাপের সময়টা। যে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে হেরে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছিল রাহুল দ্রাবিড়ের নেতৃত্বাধীন ভারত। লিটল মাস্টারের ক্যারিয়ারের ‘বাজে সময়’ নাকি এটিই।

মুম্বাইয়ে এক অনুষ্ঠানে এসে টেন্ডুলকার সেই ‘বাজে সময়’ নিয়ে খুলে দিয়েছিলেন কথার ঝাঁপি, ‘আমার মনে হয়, ২০০৬-০৭ সময়টা আমাদের জন্য ছিল সবচেয়ে খারাপ সময়। ২০০৭ বিশ্বকাপের সুপার এইটে উঠতে পারিনি আমরা।’

২০০৭ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে ভারতের সঙ্গী ছিল বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও বারমুডা। সৌরভ গাঙ্গুলী, রাহুল দ্রাবিড়, শচীন টেন্ডুলকার, বীরেন্দর শেবাগদের ভারত সেবার জিতেছিল কেবল দুর্বল বারমুডার বিপক্ষে। বাংলাদেশের পাশাপাশি হেরেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও। বাংলাদেশের কাছে হারটা ভারতের জন্য ছিল রীতিমতো বড় ধাক্কা। সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমরা তখন বাংলাদেশের ক্রিকেটে সবে তারকা হয়ে উঠছেন। তরুণ বাংলাদেশের কাছে এই হার ভারতের জন্য খুব বড় আঘাত হয়েই এসেছিল।

 

টেন্ডুলকার অবশ্য সেই খারাপ সময়েরও ভালো দিক দেখেন, ‘বাংলাদেশের কাছে হারের পরপরই আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছিলাম। নতুন চিন্তাভাবনা দিয়ে শুরু করেছিলাম নতুন করেই। আমরা অনেক কিছুতেই পরিবর্তন এনেছিলাম। কিন্তু সেই পরিবর্তনটা ঠিক ছিল না ভুল, সেটা জানতাম না। আমরা অপেক্ষা করে ছিলাম। বিশ্বকাপের ট্রফিটা হাতে নিতে আমার লেগে গিয়েছিল ২১ বছর।’ সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »

%d bloggers like this: