বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Baitul-Mukaram-sm20130213042759বার্তাবাংলা ডেস্ক ::নাশকতা ঠেকাতে বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ।

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বাধাদানকারী জামায়াতে ইসলামীর নেতা-কর্মীদের অপতৎপরতা ঠেকাতে বুধবার সকাল থেকেই সাভার-আশুলিয়া, ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে যানবাহনে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্ড অফিসার বিল্লাল হোসেন জানান, জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীরা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকে বাধাগ্রস্ত করতে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় নাশকতা সৃষ্টি করতে পারে এমন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার সকাল থেকেই বিভিন্ন গাড়িতে তল্লাশি চালায়।

এসময় ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলের (ডিইপিজেড) ওভার ব্রিজের সামনেও যাত্রীবাহী বাসে তল্লাশি চালায় পুলিশ।

এদিকে দেশের উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা একাধিক পরিবহনের চালকরা অভিযোগ করেন, পুলিশ তল্লাশির নামে অবৈধভাবে অর্থ আদায় করছে।

থানা পুলিশের গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা করার কোনো নিয়ম না থাকলেও টাকা আদায়ের জন্য সকাল থেকে পুলিশ বিভিন্ন যানবাহনের কাজগপত্র পরীক্ষা করছে বলেও এ অভিযোগ করেন তারা।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে সৈকত পরিবহনের একজন সুপারভাইজার জানান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের গাড়িতে তল্লাশি করতে কোনো বাধা নেই, তবে পুলিশ তল্লাশির নামে চালক ও গাড়ির কাগজ আটকে রেখে পরবর্তীতে টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দিচ্ছে।

এ বিষয়ে   আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদরুল আলম জানান, যুদ্ধাপরাধের বিচার বানচাল করতে জামায়াত ও ছাত্রশিবির নেতা-কর্মীরা নাশকাতা সৃষ্টি করতে পারে এমন সন্দেহে যাত্রীবাহী বাসসহ বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি চালানো হয়েছে।পুলিশের বিরুদ্ধে চালক ও যানবাহনের কাগজ আটকে টাকা গ্রহণ করছে এমন এক প্রশ্নের জাবাবে তিনি বলেন, “যদি কোনো পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে গাড়ির কাগজ আটকে রেখে টাকা নেওয়ার নির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া যায় তবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »