কঠোর নিরাপত্তায় সাকা চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে চট্টগ্রামের রাউজানে সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। রোববার সকাল নয়টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার ভাইয়ের কবরের পাশে দাফন করা হয়। রোববার সকাল নয়টার একটু আগে রাউজানের মধ্যগহিরায় তার মরদেহবাহী গাড়িটি পৌঁছায়। এর আগে পুলিশের ব্যাপক নিরাপত্তায় সাকা চৌধুরীর মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি রাউজানের গহিরার ‘বাইতুল বিল্লাল’ নেওয়া হয়। ওই সময় চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুস্তাফিজুর রহমান জানান, সাকা চৌধুরীর দাফনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে গহিরা এওয়াইজেডএম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সাকার জানাজার জন্য পুলিশের কাছে আবেদন করেন সাকার চাচাতো ভাই ফেরদৌস কাদের চৌধুরী। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত কারনে সেখানে জানাজা আয়োজনের অনুমিত দেয়নি পুলিশ। সাকা চৌধুরীর দাফনকে ঘিরে রাউজানের গহিরা ও আশপাশের এলাকায় শনিবার রাত থেকেই ১০ প্লাটুন পুলিশ ও দুই প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। রোববার ভোর ছয়টায় রাউজানের গহিরায় সাকার পারিবারিক কবরস্থানে তার কবর খোঁড়ার কাজ শেষ হয়। ১৯৭১ সালে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে ২০১৩ সালের ১ অক্টোবর সাকা চৌধুরীকে ফাঁসির দণ্ড দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। ওই রায়ের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর আপিল করেন সাকা। চলতি বছর ১৮ নভেম্বর সেই আবেদন খারিজ করে ফাঁসির দণ্ড বহাল রাখেন হাইকোর্টের আপিল বিভাগ। শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ৫৫ মিনিটে সাকা চৌধুরীর ফাঁসি কার্যকর করা হয়।