আরেক ভারতীয় সাহিত্যিক ফিরিয়ে দিলেন পুরস্কার

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: সম্প্রতি ধর্মীয় ইস্যুকে কেন্দ্র করে হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ভারতের একজন নামকরা লেখিকা দেশটির মর্যাদাপূর্ণ ‘সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার’ ফিরিয়ে দিয়েছেন। ওই সাহিত্যিকের নাম সারা যোসেফ। তিনি ২০০৩ সালে ওই পুরস্কার পেয়েছিলেন। পুরস্কার ফিরিয়ে দেওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সারা জোসেফ বলেন, বর্তমানে এ সরকারের আমলে ভয়ভীতির কারণে মানুষ স্বাধীনতাহীনতায় ভুগছে। মালায়ম ভাষার অন্যতম এ লেখিকা বলেন, ‘আমি যে ভারতে বাস করি- এটা সেই ভারত নয়।’ উত্তরপ্রদেশের দাদরি গ্রামে গরুর মাংস ফ্রিজ রাখার গুজবে একজন মুসলমানকে পিটিয়ে মারা এবং কেরালার যুক্তিবাদী এম এম কালবুর্গির হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এই পুরষ্কার ত্যাগ করেন তিনি। সারা যোসেফ বলেন, বিনা কারণে মানুষ হত্যা হচ্ছে এবং গজলের অনুষ্ঠান করতে দেওয়া হচ্ছে না। এ সব বিষয়ে যখন সাহিত্য একাডেমির প্রতিবাদ করা উচিত, তখন তারা নিরব ভূমিকা পালন করছে। তাই এরই প্রতিবাদে আমি আমার পুরস্কার ফিরিয়ে দিলাম।  এর মাধ্যমে জীবন এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতার অধিকারের ওপর হামলার প্রতিবাদে পুরস্কার পরিত্যাগ করা সাহিত্যিকদের কাতারে শামিল হলেন তিনি। এর আগে ৭ অক্টোবর একই কারণে ভারতের প্রখ্যাত সাহিত্যিক অশোক বাজপেয়ি দেশটির মর্যাদাপূর্ণ সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার ফিরিয়ে দেন। এর আগে একই ইস্যুতে ভারতের ইংরেজি লেখক নয়নতারা সেহগাল, হিন্দি লেখক উদয় প্রকাশ তাদের অর্জিত সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার পরিত্যাগ করেন।