বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

kamrulবার্তাবাংলা রিপোর্ট :: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ‘বেয়াদব’ আখ্যায়িত করেছেন খাদ্যমন্ত্রী ও ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, ‘এই বেয়াদব মহিলার (খালেদা জিয়া) নামের পেছনে আর কোনো বিশেষণ লাগাতে চাই না। সে যে ভাষায় কথা বলে তাকে সে ভাষায় সম্বোধন করা উচিৎ। এই মহিলার নাম শ্রদ্ধার সঙ্গে উচ্চারণ করা উচিৎ না।’

রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন মন্ত্রী কামরুল। আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জোটের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য জোহরা তাজউদ্দিন ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি, অভিনেতা খালেদ খানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ সভার আয়োজন করা হয়।

অ্যাডভোকেট কামরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়া রাজনৈতিক শিষ্টাচার মানে না। বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে নিয়ে ‘খালেদা’ যেভাবে-যেভাবে বিষাদগার করেন তার জবাব সেভাবেই দিতে হবে।’

খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘সত্তোর ঊর্ধ্ব এই মহিলা সঙ সেজে বক্তব্য দিতে আসেন। আমাদের বাংলাদেশে যে মুসলিম সংস্কৃতি, তাতে তার মতো অন্য কেউ এলে তাকে জুতাপেটা করা হতো। আমরা মুসলমান। আমরা সবাই ধর্মে বিশ্বাস করি। আমার মা-বোন যদি এভাবে সঙ সেজে বাইরে আসতো তাকে আমরা সমাজ থেকে বের করে দিতাম।’

‘রাজনীতিতে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান এক ভাষা ব্যবহার করছেন’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘রাজনীতিকে খালেদা-তারেক কলুষিত করেছেন। ওই দুইজন যতোদিন রাজনীতিতে থাকবে ততোদিন দেশের রাজনীতি সুস্থ হবে না। তাই দেশে সুস্থ রাজনীতি করতে হলে খালেদা-তারেককে বিদায় দিতে হবে।’ শেখ হাসিনার কোনো মামলা রাজনৈতিক বিবেচনায় তুলে নেয়া হয়নি বলেও দাবি করেন সাবেক এই আইন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, ‘বিএনপিকে সাংবাদিকরা অক্সিজেন দিয়ে বাঁচিয়ে রেখেছে। তবে বিএনপিতে অনেক ভালো লোক আছে।’

খালেদা জিয়ার রাতের বৈঠকের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘কোনো দলের মিটিং দেখছেন রাত ৯টার পরে হতে। রাতে কোনো ভালো মানুষ মিটিং করে না।’

তিনি তারেক জিয়াকে ফেরারী আসামি উল্লেখ করে বলেন, ‘তারেক জিয়া বাংলাদেশের কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সাথে জড়িত এবং তার বিরুদ্ধে যে সমস্ত মামলা হয়েছে প্রতিটি মামলাই তার সাজা হবে এবং মামলা থেকে রেহাই পাবে না জেনেই বিদেশের মাটিতে উল্টাপাল্টা বক্তব্য রাখছেন তিনি।’ সাহস থাকলে তারেক জিয়াকে দেশের মাটিতে এসে রাজনীতি এবং দুর্নীতি মামলাগুলো মোকাবেলা করার আহ্বান জানান কামরুল।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোবারক আলী শিকদার, সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, উপদেষ্টা জিএম আতিক, হাসিবুর রহমান মানিক, হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, মানবাধিকার কর্মী ফেরদৌস খান আলমগীর, টিপু সুলতান, শাহজাহান আলম সাজু, এমএ করিম, রোকনউদ্দিন পাঠান প্রমুখ

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »