বইমেলায় কাফি কামালের দুটি বই » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

kafi kamalkafi kamal2বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: অমর একুশে গ্রন্থ মেলায় প্রকাশিত হয়েছে কবি ও সাংবাদিক কাফি কামালের ভ্রমণ ও গল্পের দুইটি বই। প্রতিবেশী দেশ ভারত ভ্রমণ নিয়ে তার ভ্রমণ কাহিনী ‘কুতুব মিনার থেকে কন্যাকুমারী’। কাফি কামালের চিত্ররূপময় বর্ণনায় বাক্সময় হয়ে ওঠেছে দিল্লি-আগ্রার মোগল ও জয়পুরের রাজপুতানা স্থাপত্যের পাথুরে সৌকর্য, দরদালানের শিল্পিত কারুকাজ। উত্তর-দক্ষিণ ভারতের লীলাময় নিসর্গের অনন্য রূপ-মাধুর্য। মহল থেকে মন্দির নানা আকর্ষণীয় স্থান ঘুরে দেখতে দেখতে পাঠকদেরও অবলীলায় করে নেন ছায়াসঙ্গী। কুতুব মিনার থেকে কন্যাকুমারীর সুদীর্ঘ পথযাত্রায় তিনি পাঠকদের ঘুরিয়ে আনেন এক মায়াময় স্বপ্নাচ্ছন্নতায়। ভারত ভ্রমনেচ্ছুদের জন্য খুবই সহায়ক হবে এ বই। জনপ্রিয় প্রচ্ছদশিল্পী ধ্রুব এষ-এর প্রচ্ছদে ভারতের আকর্ষণীয় নানা স্থাপনার প্রায় ৭০টি ছবিযুক্ত দশফর্মার বইটির দাম রাখা হয়েছে আড়াইশ’ টাকা। 

কাফি কামালের গল্পের বইয়ের নাম ‘কন্যাযাত্রী’। বইয়ের ছয়টি গল্পে তিনি গল্পচ্ছলে বর্ণনা করেছেন সময় ও সমাজের ঘটমান চিত্রমালা। যেখানে কেবল হাতের নিশানা পরীক্ষা করতেই নিরীহ ব্যক্তির প্রাণ কেড়ে নেয় দাঙ্গাবাজ। মাহফিলে ধর্ম বয়ান শেষে ঘরে ফিরে বউ পেটান দরাজ কণ্ঠের মৌলভী। দীর্ঘদেহী স্ত্রী বয়ে বেড়ান হ্রস্বদৈর্ঘ্য স্বামীর শরীর। কুড়িয়ে পাওয়া মুঠোফোন নাম্বারই কাল হয় কৌতূহলী তরুণীর। যেখানে বিয়ে বাড়িতে ধুমধাম, আনন্দ-উল্লাস নিষিদ্ধ। যে দেশে নিত্য সমস্যার চিল-চিৎকারে ঝালাপালা হয়ে ওঠা কানে দেয়া হয় ভুভুজেলা চিকিৎসা। পোড়াবাড়িতে উড়ে আসে অজানা দানপত্রের দলিল। জমি দখলের দাঙ্গায় জড়িয়ে নিঃস্ব হয় সম্পন্ন গৃহস্থ।

দৈনিক মানবজমিনের সিনিয়র রিপোর্টার কাফি কামালের বই দুটি প্রকাশ করেছে জয়তী। প্রচ্ছদ এঁকেছেন জনপ্রিয় প্রচ্ছদশিল্পী ধ্রুব এষ। পাওয়া যাবে মেলার ২৮২ নাম্বার স্টলে।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ফারজানা চৌধুরী তন্বী। লেখালিখি করি ফারজানা তন্বী নামে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করার পর আজ প্রায় পাঁচ বছর ধরে লেখালিখির সঙ্গেই আছি। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, বাগান করা আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »