বার্তাবাংলা ডেস্ক »

rubelবার্তাবাংলা রিপোর্ট ::  জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন নাজনীন আক্তার হ্যাপি (১৯) নামের এক অভিনেত্রী।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করার অভিযোগ এনে হ্যাপি নিজে বাদী হয়ে শনিবার বিকেল ৪টায় মিরপুর মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলাটি দায়ের করেন।

মিরপুর থানার ওয়্যারলেস অপারেটর মো. জসিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বাদীর এজাহারের বরাত দিয়ে জসিম বলেন, ‘জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার হ্যাপিকে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে মামলায় রুবেল হোসেনের ঠিকানা উল্লেখ করেননি বাদী হ্যাপি। তিনি এজাহারে আসামির ঠিকানার স্থলে লিখেছেন, মিরপুর কমার্স কলেজের বিপরীত দিকে, দেখলে চিনব।’

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার এসআই মাসুদ পারভেজ  বলেন, ‘মামলার দায়িত্ব পাওয়ার পর ওসি স্যারের নির্দেশে তদন্ত কাজ শুরু করা হয়েছে। এ ব্যাপারে এখনই কোনো কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে রুবেল হোসেনকে আইনের আওতায় আনা হবে।’

হ্যাপি মিরপুরের রূপনগর আবাসিক এলাকার ১৬ নম্বর সড়কের ২৬ নম্বর বাসায় থাকেন। তার পিতার নাম ইউসুফ আলী। ‘কিছু আশা কিছু ভালবাসা’ চলচ্চিত্রের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন নাজনীন আক্তার হ্যাপি।

এদিকে ঘটনার বিষয়ে জানতে রুবেল হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। একটি সূত্র জানিয়েছে, মিরপুর কমার্স কলেজের কাছে রুবেলের একটি ফ্ল্যাট আছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »