বার্তাবাংলা ডেস্ক »

womenবার্তাবাংলা ডেস্ক :: গাজীপুরের কালীগঞ্জে বাল্যবিবাহের হাত থেকে অষ্টম শ্রেণিতে পডুয়া এক ছাত্রীকে রক্ষা করলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের সাতানীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

ওই গ্রামের আওলাদ হোসেন কালু মিয়ার অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়ের সঙ্গে একই ইউনিয়নের উত্তর খৈকড়া (মাদলা) গ্রামের মৃত রফিজ উদ্দিনের ছেলে নূর হোসেনের বিয়ের আয়োজন চলছিল। সব কিছু ঠিকঠাক। বর আসলেই বিয়ে। কিন্তু না! হঠাৎ ঘটল বিপত্তি।

খবর পেয়ে ইউএনও’র নির্দেশে কালীগঞ্জ থানার এসআই শফিকুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হাজির হলেন কনের বাড়িতে। বন্ধ করে দিলেন বাল্যবিবাহ। তবে নিলেন না আইনি কোনো ব্যবস্থা। ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে দেবেন না বলে মুচলেকা আদায় করে নিলেন পরিবারের কাছ থেকে।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, তারা ভুল স্বীকার করায় তাদেরকে আমরা সাবধান করে দিয়েছি। তাদের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নেওয়া হয়েছে। মেয়ের বয়স ১৮ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »