দেড় মাস ধরে মালয়েশিয়ার মর্গে পড়ে আছে কুলসুম

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: মালয়েশিয়ায় হাসপাতালের মর্গে বাংলাদেশি এক নারীর মৃতদেহ প্রায় দেড় মাস ধরে পড়ে আছে। ওই নারীর নাম কুলসুম আক্তার। মঙ্গলবার বিবিসি বাংলা এ তথ্য জানিয়েছে।

কুলসুম আক্তারের মেয়ে শারমিন আক্তার রুনা জানান, কয়েক মাস আগে ট্যুরিস্ট ভিসায় মালয়েশিয়া যান তার মা। জুনের প্রথম সপ্তাহে কুয়ালালামপুরে একটি মার্কেটের সামনে থেকে পুলিশের হাতে আটক হন তিনি।

কুলসুম আক্তারের ভাই বিল্লাল হোসেন জানান, জুনের প্রথম সপ্তাহে আটক হওয়ার পর সাত দিনের জেল হয়েছিল তার বোনের। কিন্তু সাত দিন জেল খাটার পরও ছাড়া পায়নি তার বোন।

তিনি জানান, আটক হওয়ার পর দুদফা কুলসুমের সঙ্গে তাদের কথাও হয়েছিল। তিনি আটক থাকা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে সেখানেই দেড় মাস আগে তার মৃত্যু হয় বলে তারা জানতে পেরেছেন।

তবে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের লেবার কাউন্সিল সায়েদুল ইসলাম জানিয়েছেন, মালয়েশিয়ান ইমিগ্রেশন থেকে একজন নারীর মৃত্যুর খবর দিয়ে বলা হয়েছে- তিনি বাংলাদেশি হতে পারেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে ওই নারীর বিষয়ে কেউই কিছু জানায়নি। ইমিগ্রেশন থেকে খবর পেয়ে হাইকমিশনের মাধ্যমে ওই নারীর পরিচয় নিশ্চিত করার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এটি হয়ে গেলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।’

তিনি জানান, সাধারণত বৈধ-অবৈধ যেভাবেই থাকুন না কেন কোনো বাংলাদেশি সেখানে মৃত্যুবরণ করলে হাইকমিশন মৃতদেহ দেশে পাঠাতে সহায়তা করে থাকে।