খালেদা জিয়ার জনসভা শুনলে হাসিনার গায়ে জ্বর ওঠে

বার্তাবাংলা ডেস্ক ::  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হবিগঞ্জে দেওয়া বক্তব্যকে ‘পাগলের প্রলাপ’ হিসেবে অভিহিত করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘তার ওই বক্তব্য প্রজ্বলিত রোষানলে মহাকুণ্ডলী এবং নিম্নরুচি, দুর্বল কাণ্ডজ্ঞান ও মনোবৈকল্যগ্রস্ত মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ। এই বক্তব্য পতনের আগে সরকারপ্রধানের উন্মত্ত বিলাপ।’

রোববার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব বলেন, সরকার দলীয়করণ করতে গিয়ে শিক্ষাব্যবস্থাকে কালিমাযুক্ত করেছে। আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই শিক্ষাব্যবস্থাকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করে। শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংস করা মানে জাতির মেরুদণ্ডতে আঘাত করা। কিন্তু শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য দুর্ভাগ্যজনক। তার বক্তব্যকে জনগণ ধিক্কার জানিয়েছে।

ক্ষমতা হারানোর ভয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরো ‘নিষ্ঠুর’ হয়েছেন বলে রিজভী মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার জনসভার কথা শুনলে হাসিনার গায়ে ১০৪-১০৫ ডিগ্রি জ্বর ওঠে। তাই হাসিনা পুলিশের সহযোগিতায় কুমিল্লা জনসভার আগে ও পরে বিভিন্ন স্থানে দানবীয় তাণ্ডব চালিয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী নকল করে পাস করায় জনগণের মনের কথা বোঝেন না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপির শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।