বার্তাবাংলা ডেস্ক »

shirin2বার্তাবাংলা ডেস্ক ::  জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী বলেছেন, ‘দারিদ্র্যতা বা অন্য কোনো অজুহাতে বাল্যবিয়ে কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। বাল্যবিয়ে ও মাতৃ মৃত্যু প্রতিরোধযোগ্য। এটা বন্ধ করে বাংলাদেশকে একটি রোল মডেল দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে পরিচিত করতে হবে। ২০১৫ সালের মধ্যে আমরা মাতৃ মৃত্যু রোধ করে সফলতা অর্জন করবো।’

শনিবার বিকেলে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার হাজী কোরপ আলী মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজ মাঠে ‘বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ করে মাতৃ মৃত্যুরোধ করুন’ শীর্ষক জনসচেতনতা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

স্পিকার বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্য দিয়ে আমরা এ দেশকে স্বাধীন করেছি। বাঙালীরা অসীম সাহসী। আমরা যখন যে লক্ষ্য নির্ধারণ করি, তা অর্জন করি। দেশের যে কোনো দুর্যোগ মোকাবেলা করতে আমরা সর্বদাই প্রস্তুত।’

এ সময় দারিদ্র্যসীমা কমিয়ে দেশকে ক্ষুধামুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।

ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী বলেন, ‘একজন নারী নিরাপদ গর্ভপাত করবে এটা তার অধিকার। এ অধিকার রক্ষায় সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। মাতৃ মৃত্যুরোধে স্বাস্থ্য বিভাগের পাশাপাশি অভিভাবকদের সচেতনভাবে কাজ করতে হবে।’

অনুষ্ঠানে বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে গাজীপুরের সাহিদা আকতার স্বর্ণা তার জীবনের ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনার বর্ণনা করেন।

সিরাজগঞ্জ ও কামারখন্দ আসনের সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্নার সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন এমপি রেবেকা মমিন, জাহিদ হাসান রাসেল, আব্দুল মজিদ মণ্ডল, তানভীর ইমাম, সেলিনা বেগম স্বপ্না, নেদারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত জারবান জং, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয় ও ইউনাইটেড নেশান তহবিলের সমন্বয়ক আজেন্টিনা ম্যাটাভেলা পিশ্চিন, জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব আশরাফুল মকবুল, সিরাজগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. বিল্লাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, কামারখন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন চৌধুরী প্রমুখ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »